kalerkantho

শুক্রবার। ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ৪ ডিসেম্বর ২০২০। ১৮ রবিউস সানি ১৪৪২

এমন ভয়ংকর ফাউল রেফারির কাছে 'গুরুতর' নয়!

অনলাইন ডেস্ক   

১৯ অক্টোবর, ২০২০ ১৯:০৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



এমন ভয়ংকর ফাউল রেফারির কাছে 'গুরুতর' নয়!

ভার্জিল ফন ডাইকের হাল বেহাল করে দিয়েছেন এভারটন গোলকিপার জর্ডান পিকফোর্ড। তার ভয়ংকর ট্যাকলের শিকার হয়ে লিভারপুল তারকা ফন ডাইক আগামী ৬ মাসে মাঠে ফিরতে পারেন কিনা সন্দেহ আছে। চলতি মৌসুমে তাকে মাঠে না দেখা গেলেও অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না। তার পুরো ক্যারিয়ারেও এর মারাত্মক প্রভাব পড়তে পারে। এমন ভয়ানক ট্যাকলের জন্য পিকফোর্ডের কঠোর শাস্তি হওয়াটাই স্বাভাবিক ছিল। কিন্তু বাস্তবে তা দেখা গেল না।

গত শনিবার ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে মার্সেসাইড ডার্বিতে এভারটনের মাঠে এ দুর্ঘটনাটা ঘটে। ম্যাচের ষষ্ঠ মিনিটেই পিকফোর্ডের ট্যাকলে আঘাত পেয়ে মাঠ ছাড়েন ভ্যান ডাইক।  দ্য ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের (এফএ) চোখে এটা স্রেফ একটি দুর্ঘটনা।তাই কোনো শাস্তি পাচ্ছেন না এভারটন গোলরক্ষক। ম্যাচের মাঝেও পিকফোর্ডকে কেনো শাস্তি দেওয়া হয়নি। ভিএআর থাকা সত্ত্বেও সে ফাউলে কোনো ত্রুটি খুঁজে পাননি রেফারি। ফলে ফলে লাল কার্ড তো দূরের কথা, হলুদ কার্ডও দেখেননি পিকফোর্ড।

এমন মারাত্মক ট্যাকলে হাঁটুর লিগামেন্ট ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ফন ডাইকের। যেতে হচ্ছে অস্ত্রোপচার টেবিলে। মন ইনজুরি সেরে উঠতে কম করে হলেও ছয় থেকে আট মাস সময় লাগে। এফএর শৃঙ্খলাজনিত নিয়ম অনুযায়ী, যদি কোনো ঘটনা রেফারির দৃষ্টি এড়িয়ে যায় বা ভিএআরে না দেখা হয়; তাহলে বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করা হবে। ভিএআরের অফিসিয়াল ডেভিড কোতে জানান, ঘটনার সময় অফসাইড পজিশনে ছিলেন ভ্যান ডাইক। যে কারণে লাল কার্ড ও পেনাল্টি দুটো থেকেই বেঁচে যায় এভারটন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা