kalerkantho

শনিবার । ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৮ নভেম্বর ২০২০। ১২ রবিউস সানি ১৪৪২

সুয়ারেসকে ফোনে বিদায় বলা ছাড়া উপায় ছিল না : বার্সা কোচ

অনলাইন ডেস্ক   

১৯ অক্টোবর, ২০২০ ১৭:২৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সুয়ারেসকে ফোনে বিদায় বলা ছাড়া উপায় ছিল না : বার্সা কোচ

লিওনেল মেসির বার্সেলোনা ছাড়ার সিদ্ধান্তের পেছনে অন্যতম কারণ ছিল তার প্রিয়বন্ধু লুইস সুয়ারেসের সঙ্গে চুক্তি শেষ করে দেওয়া। শেষ পর্যন্ত মেসি বার্সায় থেকে গেলেও সুয়ারেস চলে গেছেন আতলেটিকো মাদ্রিদে। ভবিষ্যৎ পরিকল্পনায় তোমাকে আর দরকার নেই- কোচ রোনাল্ড কোম্যানের থেকে ফোনে এমন কথা শুনে মর্মাহত হয়েছিলেন দীর্ঘ ৬ বছর দলকে অনেককিছু দেওয়া সুয়ারেস। তবে বার্সা কোচ সাফাই দিয়ে বললেন, এভাবে বলা ছাড়া উপায় ছিল না।

গত এক যুগে প্রথম ট্রফিশূন্য মৌসুম কাটানোর পর পরিবর্তনের ঘোষণা দেয় বার্সেলোনা। নতুন কোচ হয়ে আসা কোম্যান ঘোষণা করেন, লুইস সুয়ারেস তার ও ক্লাবের পরিকল্পনায় নেই। এরপর ৩৩ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড সুয়ারেস বলেছিলেন, 'তারা দলে পরিবর্তন আনতে চেয়েছিল, বিষয়টা আমাকে অন্যভাবেও বলা যেত। যেভাবে এটা করা হয়েছে, তাতে মনে হয়েছে তারা আমাকে ছুড়ে ফেলছে, সেটাই আমাকে বেশি কষ্ট দিয়েছে। ওই দিনগুলো খুব কঠিন ছিল।'

এবার একটি ডাচ দৈনিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বিষয়টি নিয়ে আত্মপক্ষ সমর্থন করেছেন রোনাল্ড কোম্যান। তিনি বলেছেন, 'সে তখনও ছুটিতে ছিল, যা পরিস্থিতিকে কঠিন করে তুলেছিল। তাই আমি ফোন করেছিলাম। এছাড়া আর কোনো উপায় ছিল না। ওই সময়ের পরিস্থিতি তাকে খুলে বলাটাই সবচেয়ে ভালো ছিল। সুয়ারেসের তখনও চুক্তির মেয়াদ ছিল এবং ভবিষ্যৎ নিয়ে নিজেই সিদ্ধান্ত নিতে পারত। তবে আমি নিজের কাছে পরিষ্কার ছিলাম। ওই পরিস্থিতিতে এটাই ছিল একমাত্র বিকল্প।'

বার্সায় এই পরিবর্তনের দায় সমর্থকেরা কোম্যানের ওপরেই চাপাচ্ছে। তবে সিদ্ধান্তটা তার একার ছিল না বলেও জানান কোম্যান। তিনি বলেন, 'পরিবর্তনের বিষয়টি ছিল পরিষ্কার। ক্লাব এমনটি ভাবছিল, আমিও তাই-ই ভাবছিলাম। মাঠের ফুটবলের পাশাপাশি স্কোয়াডেও পরিবর্তন দরকার ছিল। আনসু ফাতি ও পেদ্রির মতো তরুণ মেধাবীরা দারুণভাবে বেড়ে উঠছে। আর আমার মতে, সুয়ারেসের মতো কয়েক জন এই মৌসুমে কম খেলার সুযোগ পেত।'

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা