kalerkantho

শনিবার । ৮ কার্তিক ১৪২৭। ২৪ অক্টোবর ২০২০। ৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

৫ ছক্কা হাঁকানো তেওয়াটিয়াকে ৬ ছক্কার মালিক যুবরাজের 'ধন্যবাদ'

অনলাইন ডেস্ক   

২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১৭:৩৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



৫ ছক্কা হাঁকানো তেওয়াটিয়াকে ৬ ছক্কার মালিক যুবরাজের 'ধন্যবাদ'

আরেকটু হলেই ক্রিকেটবিশ্ব আরও একবার দেখতে পেত ৬ বলে ছয় ছক্কা হাঁকানোর বিরল সেই দৃশ্য। গতকাল আইপিএলের মঞ্চে ৫ ছক্কা মেরেছেন রাজস্তান রয়্যালসের রাহুল তেওয়াটিয়া। পোড়া কপালের বোলারটি উইন্ডিজের শেলডন কটরেল। তেওয়াটিয়া  প্রথম ১৯ বলে করেছিলেন মাত্র ৮ রান। যখন সবাই তাকে নিয়ে আশা ছেড়ে দিয়েছে, ঠিক তখনই তার ব্যাটে দেখা দেয় ঝড়।

তেওয়াটিয়ার ব্যাটে ছক্কা বৃষ্টি দেখে অবাক যুবরাজ সিংহ। সবাই ধরেই নিয়েছিলেন নস্টালজিয়ার শারজায় যুবরাজের ছয় ছক্কার রেকর্ড হয়তো ছুঁয়ে ফেলবেন তেওয়াটিয়া। কটরেলের প্রথম ৪ বলে ৪টি ছক্কা মারলেও পঞ্চম বলটা তিনি মাঠের বাইরে পাঠাতে পারেননি। শেষ বলে কটরেলকে আবার গ্যালারিতে ছুড়ে ফেলেন। ৬ বলে ৬ ছক্কা মারার বিরল রেকর্ড তার আপাতত গড়া হলো না।

তেওয়াটিয়ার ৩১ বলে ৫৩ রানের জন্যে ৩ বল বাকি থাকতেই ম্যাচ জিতে নেয় রাজস্থান। সঞ্জু স্যামসন ৪২ বলে ৮৫ রানের মূল্যবান ইনিংস খেলেন। কিন্ত কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব-রাজস্থান রয়্যালস ম্যাচের গেমচেঞ্জার আসলে তেওয়াটিয়া। তার ছক্কা মারা দেখে বিস্মিত যুবরাজ টুইটারে লিখেনন, 'রাহুল তেওয়াটিয়া, না ভাই না। একটা বল মিস করার জন্য ধন্যবাদ। কী দুর্দান্ত ম্যাচ!'

২০০৭ সালের টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের স্টুয়ার্ট ব্রডকে ৬টি ছক্কা মেরেছিলেন যুবরাজ। রবিবার তাকে প্রায় ছুঁয়ে ফেলেছিলেন তেওয়াটিয়া। যদিও অনেকেই বলবেন টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আর আইপিএল এক নয়। কিন্তু ৬ বলে ৬ ছক্কা মারাও তো সহজ ব্যাপার নয়। কটরেলের পঞ্চম বলটা মিস করায় শেষ পর্যন্ত আর রেকর্ড গড়া হয়নি তেওয়াটিয়ার। তাই যুবরাজের কীর্তির কোনো ভাগীদারও আপাতত জোটেনি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা