kalerkantho

রবিবার । ৯ কার্তিক ১৪২৭। ২৫ অক্টোবর ২০২০। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

সময় আছে তাই আরো অপেক্ষা

ক্রীড়া প্রতিবেদক   

২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০২:৪৩ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



সময় আছে তাই আরো অপেক্ষা

কোয়ারেন্টিনের শর্ত শিথিল না করলে শ্রীলঙ্কা সফর নয়—বোর্ড সভাপতির এই ঘোষণার পর পেরিয়ে গেছে দুই সপ্তাহ। সেই থেকে শুরু হওয়া অপেক্ষা ফুরাচ্ছেও না। তবু আরো অপেক্ষায় যেন কোনো বিরক্তি নেই বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি)। অন্তত ক্রিকেট অপারেশনস কমিটি প্রধান আকরাম খানের বক্তব্যে তা-ই মনে হওয়া স্বাভাবিক, ‘সময় আছে, এটি চিন্তার বিষয় নয়।’

কেন নয়? সেই ব্যাখ্যায় শ্রীলঙ্কার ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি আসর লঙ্কান প্রিমিয়ার লিগ (এলপিএল) পিছিয়ে যাওয়ার প্রসঙ্গও টেনেছেন এই বিসিবি পরিচালক, ‘ওদের যে টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টটি হওয়ার কথা ছিল, সেটি যথাসময়ে হচ্ছে না। তাই ওদেরও সময় আছে। সময় আছে আমাদেরও।’ যদিও অনির্দিষ্ট অপেক্ষায় এরই মধ্যে শ্রীলঙ্কা সফর তৃতীয় দফা পিছিয়ে দিয়েছে বিসিবি।

সব কিছু ঠিক থাকলে আজই (২৭ সেপ্টেম্বর) তিন টেস্টের সিরিজ খেলার জন্য কলম্বো রওনা হয়ে যাওয়ার কথা ছিল মমিনুল হকের দলের। কিন্তু কোয়ারেন্টিনের শর্ত শিথিল হচ্ছে কি হচ্ছে না, তা নিয়ে ‘এই জানব, জানছি’ করে করে একসময় ঠিক বোঝা হয়ে যায় যে পূর্বনির্ধারিত সময়ে যাওয়া হচ্ছে না। বিসিবি তখন ঠিক করে জাতীয় দলকে পাঠাবে ৩ অক্টোবর। আকরাম গতকাল জানালেন যাওয়ার নতুন সম্ভাব্য সময়। স্বাভাবিকভাবেই নতুন সূচিও নিশ্চিত করে বলার অবস্থায় নেই বিসিবির কেউই। ক্রিকেট অপারেশনস প্রধানও এর ব্যতিক্রম নন, ‘যদি সব কিছু ইতিবাচকভাবে এগোয়, তাহলে আমরা আগামী মাসের (অক্টোবর) ৭-১০ তারিখের মধ্যে যেতে পারি।’

সফর আরো পিছিয়ে যাওয়ায় গত ২০ সেপ্টেম্বর থেকে হোটেলে বায়ো-বাবল বা জৈব নিরাপত্তা বলয়ে থেকে হাঁপিয়ে ওঠা ক্রিকেটারদের স্বস্তিও মিলেছে। মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে চলমান স্কিল ক্যাম্পে তিন দিনের বিরতি দেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে ক্রিকেটারদের সবাইকে বাসায় যাওয়ার অনুমতিও দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিসিবির প্রধান চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী, ‘আপাতত তিন দিনের বিরতি। এরপর বোর্ডের নির্দেশনা অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ক্রিকেটারদের তাই বাসায় যেতে দেওয়া হয়েছে।’ তাহলে বায়ো-বাবলের কী হবে? তাঁর জবাব, ‘নতুন করে আবার তৈরি করতে হবে।’

নতুন করে আবার তৈরি করতে হলে নতুন করে কভিড পরীক্ষাও করাতে হবে। এর আগে স্কিল ক্যাম্পের বিরতির মধ্যেই শ্রীলঙ্কা থেকে চূড়ান্ত ফল পাওয়ার আশা আকরামের, ‘ব্যাপারটি শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটের (এসএলসি) হাতেও নেই। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে ওরা গতকালও (পরশু) আশা করেছিল কিছু একটা (নতুন নির্দেশিকা) পাবে, কিন্তু পায়নি। পেলে আশা করছি আগামী দুই-তিন দিনের মধ্যে আমাদের জানাবে।’

দুই সপ্তাহ অপেক্ষার পরও বিসিবির আরো অপেক্ষায় অমত নেই। অথচ গত ১৪ সেপ্টেম্বর না বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান বলেছিলেন তাঁরা এ জন্য বেশিদিন অপেক্ষা করতে রাজি নন? সফরে যেতে মরিয়া বলেই কি তাহলে অবস্থান বদলেছে বিসিবি? এমন প্রশ্নের জবাবে আকরাম বলেছেন, ‘আমরা মরিয়া নই। ওরাই বারবার অনুরোধ করে আমাদের বলেছে যে ওদের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়কে (আসলে কভিড টাস্কফোর্স) বোঝাতে পারবে। এমন নয় যে ওরা চাচ্ছে না, আমরা জেরা করে যাচ্ছি। মরিয়া হলে তো ওদের শর্ত মেনেই যেতে পারতাম। আমাদের সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার হলো ক্রিকেটারদের ভালো থাকা।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা