kalerkantho

শনিবার । ৮ কার্তিক ১৪২৭। ২৪ অক্টোবর ২০২০। ৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

করোনার কাছে হেরে গেল এশিয়ান চ্যাম্পিয়নরা

অনলাইন ডেস্ক   

২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১৯:৩৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



করোনার কাছে হেরে গেল এশিয়ান চ্যাম্পিয়নরা

করোনা ভাইরাসের কারণে এশিয়ান চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফুটবল থেকে ছিটকে গেল বর্তমান চ্যাম্পিয়ন সৌদি আরবের আল হিলাল। পরবর্তী ম্যাচের জন্য পর্যাপ্ত খেলোয়াড়ের তালিকা দিতে ব্যর্থ হওয়ায় বুধবার তাদেরকে টুর্নামেন্ট থেকে বের করে দেয়া হয়েছে। দুবাইয়ের শাবাব আল আহিলের বিপক্ষে এএফসি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ (পশ্চিম) এর 'বি' গ্রুপের ম্যাচের জন্য ১৩ জন খেলোয়াড়ের নাম জমা দিতে ব্যর্থ হয়েছে আল হিলাল। ফলে ক্লাবটি টুর্নামেন্ট থেকে সরে এসেছে বলে ধরে নেয়া হচ্ছে।

এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশন (এএফসি) এক বিবৃতিতে জানায়, 'কোভিড-১৯ মহামারির সময় এএফসি প্রতিযোগিতায় বিশেষ নিয়ম কার্যকর রয়েছে। ইতোমধ্যে শেষ ষোলতে উত্তীর্ণ হওয়া সৌদি জায়ান্টরা এই প্রতিযোগিতায় আর অংশ নিতে পারবে না।' সবগুলো ম্যাচে অংশ নেয়া আল হিলাল ১১ জন খেলোয়াড়ের নাম দিয়েছে। তাদেরকে বাতিল ও অকার্যকর হিসেবে বিবেচনা করা হবে। এর ফলে 'বি' গ্রুপ থেকে শেষ ষোলতে উত্তীর্ণ হবে উজবেকিস্তানের পাখতাকোর ও দুবাইরয়ের শাবাব আল আহলি।

প্রতিযোগিতার আইন অনুযায়ী প্রতিটি ক্লাব ৩৫জন খেলোয়াড়ের নাম তালিকাভুক্ত করতে পারবে। তবে আল হিলাল তালিকাভুক্ত করেছে মাত্র ৩০জন খেলোয়াড়। এদের মধ্যে টুর্নামেন্টের আগে দোহা সফরে গিয়েছিল দলের ২৭জন ফুটবলার। 'বিশেষ পরিস্থিতিতে ম্যাচের সূচি বিলম্বিত করার বিধান এএফসি আইনে রয়েছে' উল্লেখ করে আল হিলাল ও সৌদি আরব ফুটবল ফেডারেশন (এসএএফএফ) আল শাবাবের বিপক্ষে ম্যাচটি স্থগিত করার আহ্বান জানিয়েছিল। কিন্তু সূচির পরবর্তী ম্যাচগুলোতে এর তীব্র প্রভাব পড়ার আশংকায় তাদের আবেদন নামঞ্জুর করা হয়।

এএফসি ম্যাচ স্থগিত করতে রাজি না হওয়ায় দলের ১৫জন খেলোয়াড়ের করোনা পজিটিভ হওয়ার পরও রোববার ইরানের শাহর খোদ্রর বিপক্ষে ম্যাচ খেলেছে আল হিলাল। পরে আরো ৫ খেলোয়াড় করোনায় আক্রান্ত হবার পর পরবর্তী ম্যাচের জন্য দলে আবশিষ্ট ছিল মাত্র ১০ জন খেলোয়াড়। এমন অবস্থায় কাতারের আল জানব স্টেডিয়ামের ম্যাচটি স্থগিত করার আহবান জনায় সৌদি দল। এএফসি নিয়ম অনুযায়ী আল হিলাল এখনো ম্যাচটি খেলতে পারবে। তবে দুইজন গোল রক্ষক সহ তাদের খেলার মত অন্তত ১৪জন খেলোয়াড় থাকতে হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা