kalerkantho

বুধবার । ৫ কার্তিক ১৪২৭। ২১ অক্টোবর ২০২০। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

আইপিএলে কোন অধিনায়কের বেতন কত?

অনলাইন ডেস্ক   

১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১৬:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



আইপিএলে কোন অধিনায়কের বেতন কত?

রাত পোহালে আগামীকাল শনিবার থেকেই আইপিএল শুরু হতে যাচ্ছে। প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি চেন্নাই সুপার কিংস এবং মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। একসময়ে ধরেই নেওয়া হয়েছিল বোর্ড হয়ত এই মৌসুমে আইপিএল আয়োজন করতে পারবে না। তবে সমস্ত শঙ্কাকে তুড়ি মেরে বিসিসিআই আমিরাতে শুরু হতে যাচ্ছে টুর্নামেন্ট। এবারের আইপিএল শুরুর আগে দেখে নেওয়া যাক, কোন দলের অধিনায়কের বেতন কত!

বিরাট কোহলি (রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু) ১৭ কোটি: শুধু অধিনায়কদের মধ্যেই নয়, আইপিএলের ইতিহাসে সবথেকে দামি ক্রিকেটার হলেন বিরাট কোহলি। ১৭ কোটি রুপির বিনিময়ে কোহলিকে নিলামে ধরে রেখেছে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু। একমাত্র ক্রিকেটার হিসেবে আইপিএলের সমস্ত সংস্করণেই একই দলের প্রতিনিধিত্ব করেছেন বিরাট কোহলি।

রোহিত শর্মা (মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স) ১৫ কোটি: আইপিএলের ইতিহাসে সফলতম অধিনায়ক রোহিত শর্মা। শিরোপা জিতেছেন ৪ বার। রোহিতকে নিলামে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স ধরে রেখেছে ১৫ কোটি রুপির বিনিময়ে। সূত্রের খবর, রোহিতকে নাকি কোহলির সমপরিমাণ অর্থের প্রস্তাব দিয়েছিল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। তবে রোহিতই নাকি অত টাকা চাননি।

মহেন্দ্র সিং ধোনি (চেন্নাই সুপার কিংস) ১৫ কোটি: আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের মতো আইপিএলেও ধোনির রাজত্ব চলছে। ২০১৮ সালে ক্রিকেটার ধরে রাখার ক্ষেত্রে ধোনিই ছিল চেন্নাই সুপার কিংসের প্রথম পছন্দ। ধোনির বেতন ১৫ কোটি। ধোনির নেতৃত্বে চেন্নাই সুপার কিংস আইপিএলে ৩ বার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। ফাইনালে চেন্নাই সুপার কিংস খেলেছে রেকর্ড সংখ্যক ৮ বার।

শ্রেয়স আইয়ার (দিল্লি ক্যাপিটালস) ৭ কোটি: ২০১৮ সালে শেষ ক্রিকেটার হিসেবে শ্রেয়স আইয়ারকে রিটেন করে দিল্লি ক্যাপিটালস। তারপর শ্রেয়সকে অধিনায়ক নির্বাচন করে কিছুটা বিস্ময় ছড়ায় দিল্লি। কারণ, অনেকেই ভেবেছিলেন ঋষভ পন্থকে অধিনায়ক করা হবে। যিনি অধিনায়ক হিসেবে দিল্লির দলকে রঞ্জি ট্রফির ফাইনালে তুলেছিলেন।

স্টিভ স্মিথ (রাজস্থান রয়্যালস) ১২ কোটি: ২০১৮ সালে অস্ট্রেলীয় অধিনায়ককে ১২ কোটি রুপির বিনিময়ে ধরে রাখে রাজস্থান রয়্যালস। তবে সেই বছর নির্বাসনের কারণে খেলতে পারেননি অজি অধিনঅয়ক। ২০১৯ সালে স্মিথ নির্বাসন কাটিয়ে ফিরতেই রাহানেকে সরিয়ে স্মিথকে আবারও অধিনায়ক করা হয়। মৌসুমের মাঝপথেই নেতৃত্বে বদল আনে রাজস্থান। ২০২০ সালে পূর্ণ সময়ের অধিনায়ক হয়েছেন স্মিথ।

ডেভিড ওয়ার্নার (সানরাইজার্স হায়দরাবাদ) ১২ কোটি: স্মিথের জাতীয় দলের সহকারীর বেতনও ১২ কোটি রুপি। স্মিথের মতো একই পাপকাজ করে নিষেধাজ্ঞা কাটানো শেষে গত মৌসুমে কেন উইলিয়ামসনের নেতৃত্বে খেলেছিলেন। এবার আবারও তাকে নেতৃত্বে আনা হয়েছে। গত মৌসুমে ১২ ম্যাচে ৬৯২ রান করে অরেঞ্জ ক্যাপ জেতেন অস্ট্রেলীয় সুপারস্টার।

লোকেশ রাহুল (কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব) ১১ কোটি: ২০১৮ সালের নিলামে ১১ কোটি রুপিতে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবে যোগ দেন রাহুল। নিলামে রাহুলকে নিতে আগ্রহী ছিল ৪টি দল। তবে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব শেষ হাসি হাসে। আইপিএলে ১৪৬.৬০ স্ট্রাইক রেট সমেত ১২৫২ রান করেছেন রাহুল।

দীনেশ কার্তিক (কলকাতা নাইট রাইডার্স) ৭.৪ কোটি:  ২০১৮ সালে কলকাতা নাইট রাইডার্সের টিম ম্যানেজমেন্ট চেয়েছিল রবিন উত্থাপাকে দায়িত্বে আনতে। তবে সবাইকে সারপ্রাইজ দিয়ে অধিনায়ক করা হয় দীনেশ কার্তিককে। নিলামে দিনেশ কার্তিককে ৭.৪ কোটি রুপিতে কিনে নেয় শাহরুখ খানের দল। অভিজ্ঞ এই ক্রিকেটারকে নিতে রাজস্থান, চেন্নাই এবং মুম্বাইও আগ্রহী ছিল।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা