kalerkantho

শুক্রবার । ৩ আশ্বিন ১৪২৭। ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০। ২৯ মহররম ১৪৪২

বুদ্ধিমানরা সব কিছুর বিকল্প ঠিক করে রাখে : গাঙ্গুলী

অনলাইন ডেস্ক   

৯ আগস্ট, ২০২০ ২১:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বুদ্ধিমানরা সব কিছুর বিকল্প ঠিক করে রাখে : গাঙ্গুলী

এ বছরের ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) টাইটেল স্পনসর হিসেবে থাকছে না চীনের মোবাইল সংস্থা ভিভো। সদ্যই ভিভোর সঙ্গে  চুক্তির ইতি টেনেছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)। তাই আগামী সেপ্টেম্বর আইপিএলের ত্রয়োদশ আসরে ভিভো না থাকায় টুর্নামেন্টের ক্ষতি হবে ৪৪০ কোটি রুপির রাজস্ব। বিসিসিআই পাবে না ২২০ কোটি রুপি। বিসিসিআইয়ের তরফ থেকে বলা হয়েছে, শিগগিরই নতুন স্পন্সরের নাম ঘোষণা করা হবে। 

ভিভোর সাথে চুক্তির ইতি টানায় বড় ধরনের আর্থিক ক্ষতি হবে আইপিএল ও বিসিসিআইয়ের। কিন্তু এটি নিয়ে মোটেও চিন্তিত নন বিসিসিআইয়ের সভাপতি ও ভারতের সাবেক অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলী। তিনি নাকি ভিভোর বিকল্প ভেবে রেখেছেন। ভারতের সাবেক এই খ্যাতিমা অধিনায়কের মতে, বুুদ্ধিমানরা সব কিছুরই বিকল্প ভেবে রাখে। শোনা যাচ্ছে, এই মৌসুমের জন্য ভারতীয় কম্পানিকে মূল স্পনসর হিসেবে দেখা যাবার সম্ভাবনা বেশি।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমকে গাঙ্গুলী বলেন, 'আপনাকে সব সময় যে কোনো বিষয়ের বিকল্প আগেভাগেই ভেবে রাখতে হবে। বুদ্ধিমানরা তাই করে। ভালো ব্র্যান্ডও তা-ই করে। যেকোনো ভালো করপোরেট প্রতিষ্ঠানেরও তেমন পরিকল্পনাই থাকে। সবকিছুর বিকল্প ভেবে রাখে তারা। বিসিসিআইয়েরও বিকল্প ভাবনা আছে। আমরা আইপিএলের স্পন্সর কে হবে, তা নিয়ে কাজ করছি। আশা করছি, দ্রুতই সমাধান হবে।'

আর্থিক ক্ষতি হলেও বিসিসিআইয়ের ভিত্তি শক্ত বলে উল্লেখ করলেন গাঙ্গুলী, 'বিসিসিআইয়ের ভিত্তি খুবই শক্ত। অতীতের যারা এই বোর্ডের দায়িত্বে ছিলেন, তারা ভারতীয় ক্রিকেটকে এমন শক্ত জায়গায় নিয়ে গেছেন যে, এ ধরনের সমস্যা বা যেকোন ধরনের সমস্যা মোকাবেলা করার জন্য তৈরি বিসিসিআই। এসব বিষয় বিসিসিআই খুব ভালোভাবেই সামলাতে পারে। ভিভোর সাথে চুক্তি শেষ হয়ে যাওয়া কোনো আর্থিক সংকট তৈরি করবে না বোর্ডের বা আইপিএলের।'

গত জুনে লাদাখ সীমান্তে চীনা সেনার সাথে সংঘর্ষে ২০ জন ভারতীয় জওয়ান শহীদ হন। এরপর থেকে ভারতজুড়ে চীনা পণ্য বয়কটের দাবি ওঠে। পরে টিকটক, হেলো, শেয়ার ইটের মতো চীনা অ্যাপ ভারতে নিষিদ্ধ করে দেয়া হয়। ২০১৮ সালে ভিভোর সাথে পাঁচ বছরের জন্য চুক্তি করে বিসিসিআই। এই পাঁচ বছরে বিসিসিআইকে ২ হাজার ১৯৯ কোটি রুপি দেয়ার কথা ছিলো ভিভোর।
এদিকে, ভিভোর সাথে চুক্তি শেষ করায় আগামী সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হওয়া আইপিএল-এর টাইটেল স্পনসর হবার দৌড়ে আছে রিলায়েন্স, বাইজু এবং আমাজন- এর নাম।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা