kalerkantho

শনিবার । ২৪ শ্রাবণ ১৪২৭। ৮ আগস্ট  ২০২০। ১৭ জিলহজ ১৪৪১

সমালোচিত দুটি সিদ্ধান্তকে সঠিক বললেন স্টোকস

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ জুলাই, ২০২০ ১৮:০৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সমালোচিত দুটি সিদ্ধান্তকে সঠিক বললেন স্টোকস

করোনাভাইরাসের কারণে ১১৬ দিন স্থগিত থাকার পর শুরু হওয়া ক্রিকেটের প্রথম ম্যাচেই হেরে বসল ইংল্যান্ড। সাউদাম্পটনে অনুষ্ঠিত সিরিজের প্রথম টেস্ট সফরকারী ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৪ উইকেটে জিতে নিয়েছে। তবে ইংলিশ টিম ম্যানেজমেন্টের দুটি সিদ্ধান্ত নিয়ে তুমুল সমালোচনা হয়েছে। প্রথমটি ছিল, টস জিতে আগে ব্যাট করা। আর দ্বিতীয়টি- টেস্টে ইংল্যান্ডের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী স্টুয়ার্ট ব্রড সেরা একাদশে না থাকা।

হারের পরও সমালোচিত দুটি সিদ্ধান্ত সঠিক ছিল বলে জানালেন ইংল্যান্ডের অধিনায়ক স্টোকস। তিনি বলেন, 'আমি প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্তকে সঠিক বলছি। আমাদের লক্ষ্য ছিল বড় স্কোর করা। আর বড় স্কোর করার যথেষ্ট সামর্থ্য ছিল আমাদের ব্যাটসম্যানদের। কিন্তু আমাদের ব্যাটসম্যানরা ভালো সুযোগ পেয়েও তা হাতছাড়া করেছে। দুটি ইনিংসেই বড় জুটি গড়ার পথ তৈরি করেও আমরা পারিনি। যদি আমরা তা পারতাম, তবে ম্যাচের চিত্র পাল্টে যেত। ব্যাটসম্যানরা ব্যর্থ হয়েছে।'

দেশের মাটিতে অনুষ্ঠিত টেস্টের একাদশে সুযোগ না পেয়ে সংবাদমাধ্যমে হতাশা-ক্ষোভ ঝেড়েছেন স্টুয়ার্ট ব্রড। ব্রডের ক্ষোভকে অযৌক্তিক মনে করছেন না স্টোকস, 'আমি যদি এটি নিয়ে দুঃখ প্রকাশ করি, তবে আমি মনে করি না অন্যদের কাছে সঠিক বার্তা যাবে। সে সংবাদমাধ্যমে যা বলেছে, ঠিক বলেছে। নিজের আবেগকে দারুনভাবে প্রকাশ করেছে। ১শ টেস্ট খেলা, ইংল্যান্ডের পক্ষে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী হয়েও যে আবেগ প্রকাশ করেছে তা যদি সে না করতো তাহলেই আমি অবাক ও উদ্বিগ্ন হতাম। ব্রড দুর্দান্ত একজন বোলার, সে নিজেও জানে, আমরাও জানি। আশা করব, ভবিষ্যতে সে আরও ভালো পারফরমেন্স করবে।'

সিরিজে পিছিয়ে পড়লেও বাকি দুই টেস্টে জ্বলে উঠার ইঙ্গিত দিলেন স্টোকস। হাল ছাড়তে রাজি নন তিনি, 'আমরা জানি আরও দুটি টেস্ট বাকি আছে এবং সে দুটিতেই জিততে চাই আমরা। এই অবস্থায় আমরা জানি আমাদের কী করতে হবে। সেটা হলো- শেষ দুটি টেস্ট জিতে নেওয়া। অতীতেও পিছিয়ে পড়ে আমরা লড়াইয়ে ফিরেছি। তাই আমি বলব, আমরা মোটেও হতাশ নই। তবে এটাও বলতে পারব, এমন ম্যাচে আমিই ছিলাম ইংল্যান্ডের অধিনায়ক।'

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা