kalerkantho

শুক্রবার । ২৩ শ্রাবণ ১৪২৭। ৭ আগস্ট  ২০২০। ১৬ জিলহজ ১৪৪১

'আম্পায়ার্স কল' আইনের তীব্র বিরোধিতায় শচীন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১২ জুলাই, ২০২০ ১৭:৪১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



'আম্পায়ার্স কল' আইনের তীব্র বিরোধিতায় শচীন

আইসিসির অদ্ভুত কিছু আইন আছে। যার মধ্যে অন্যতম হলো 'আম্পায়ার্স কল'। লেগ বিফোরের উইকেটের ক্ষেত্রে যখন তৃতীয় আম্পায়ার সিদ্ধান্ত নিতে না পারেন, তখন ফিল্ড আম্পায়ারের সুপারিশকৃত সিদ্ধান্তই মেনে নেওয়া হয়। যা রীতিমতো বিতর্কিত। এবার এই 'আম্পায়ার্স কল' নিয়মের পরিবর্তন চাইলেন শচীন টেন্ডুলকার। তার মতে, একজন ব্যাটসম্যান আউট হতে পারেন কিংবা নট-আউট। কিন্তু দুটির মাঝামাঝি কিছু থাকতে পারে না।

এই আইন অনুযায়ী আম্পায়ারের নট আউটের সিদ্ধান্ত পাল্টাতে হলে বলের ৫০ শতাংশের বেশি লাগতে হবে স্টাম্পে। তা নাহলে ফিল্ড আম্পায়ারের আগের সিদ্ধান্ত বহাল থাকে। যেহেতেু মাঠে থাকা আম্পায়ার আউট দেননি, তাই ব্যাটসম্যান আউট হন না। বল যতই স্টাম্পে লাগুক না কেন তিনি নট-আউট থাকেন। এটাই 'আম্পায়ার্স কল' আইন। শচীন এটারই বিরোধিতা করেছেন। তাঁর মতে, তৃতীয় আম্পায়ারের কাছে সিদ্ধান্ত নেওয়ার দায়িত্ব আসার পর মাঠের আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত আর গুরুত্ব পাওয়া উচিত নয়। 

ওয়েস্ট ইন্ডিজের কিংবদন্তি ব্রায়ান লারার সঙ্গে এক অ্যাপে কথা বলার সময় শচীন বলেছেন, 'আইসিসির সঙ্গে ডিআরএস নিয়ে কখনই একমত নই। বলের কত শতাংশ উইকেটে লাগছে, তা বিবেচনার দরকার নেই। ডিআরএস যদি দেখায় যে বল স্টাম্পে লাগছে, তাহলে সেটা আউট। মাঠে থাকা আম্পায়ার যাই বলুক না কেন সিদ্ধান্ত এটাই হবে। থার্ড আম্পায়ারের কাছে সিদ্ধান্ত যাওয়ার মানে তখন প্রযুক্তিই ঠিক করবে কি হওয়া উচিত। টেনিসে যেমন হয়, বল হয় ভিতরে পড়েছে, না হয় বাইরে। এর মাঝামাঝি কিছু হয় না।'

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা