kalerkantho

শুক্রবার । ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭। ১৪ আগস্ট ২০২০ । ২৩ জিলহজ ১৪৪১

মার্টিনেজের বার্সায় আসা নির্ভর করছে কুতিনহোর ওপর

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১১ জুলাই, ২০২০ ২১:৪৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মার্টিনেজের বার্সায় আসা নির্ভর করছে কুতিনহোর ওপর

ইন্টার মিলানের স্ট্রাইকার লাউতেরো মার্টিনেজকে আগামী মৌসুমের জন্য দলে নিতে চায় বার্সেলোনা। সেজন্য মার্টিনেজের সাথে ব্যক্তিগত শর্তেও তারা রাজি। কিন্তু সবকিছুই নির্ভর করছে ফিলিপ কুতিনহোকে ছেড়ে দেওয়ার উপর। ২২ বছর বয়সী মার্টিনেজ ক্যাম্প ন্যুতে যাবার জন্য মৌখিক সম্মতি দিয়েছেন। তবে আর্জেন্টাইন তারকাকে ছেড়ে দেওয়ার বিষয়টি সম্পূর্ণই ইন্টারের ইচ্ছা। দুই ক্লাবের মধ্যে এই চুক্তির ব্যপারে আলোচনা চলছে বলে ঘনিষ্ট একটি সূত্র নিশ্চিত করেছ।

তবে সম্প্রতি করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে বিষয়টিতে কিছুটা বাধা পড়েছে। আগামী মৌসুমে দলবদলের বাজারে বার্সা সব মিলিয়ে ২০০ মিলিয়ন ইউরো কমানোর কথা জানিয়ে দিয়েছে। মার্টিনেজের দলবদলের শর্তানুযায়ী, এই মুহূর্তে তাকে দিতে হবে প্রায় ১১১ মিলিয়ন ইউরো। যদিও বার্সেলোনা কখনই এত অর্থ দিতে রাজি হয়নি। এ কারণেই মূলত এই চুক্তিটি নিয়ে শঙ্কা থেকেই যাচ্ছে।

কাতালান ক্লাবটি অবশ্য তারকা এই স্ট্রাইকারকে কোনোভাবে অর্থ কমিয়ে দলে নিতে বেশ আগ্রহী। তবে ইন্টার এক্ষেত্রে কোনো ছাড় দিবে না বলে সূত্রটি জানিয়েছে। এ জন্যই ক্লাবের রেকর্ড চুক্তিভূক্ত ব্রাজিলিয়ান তারকা কুতিনহোর ওপরও অনেক কিছুই নির্ভর করছে। তাকে ছেড়ে দিতে বার্সা সর্বোচ্চ সংখ্যক অর্থই দাবি করবে।

২০১৮ সালে লিভারপুল থেকে কুতিনহোকে দলে আনতে বার্সা ১৬০ মিলিয়ন ইউরো ব্যয় করেছিল। কিন্তু করোনার কারণে দলবদলের বাজারে চরম অনিশ্চয়তা সত্তেও মৌসুমের শেষে কুতিনহোকে ছেড়ে দিতে এখনো আশাবাদী কাতালান জায়ান্টরা। বর্তমানে ধারে তিনি বায়ার্ন মিউনিখে খেলছেন। চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শেষ হওয়া পর্যন্ত তিনি সেখানেই থাকবেন।

কুতিনহোর এজেন্ট কিয়া জুরাবচিহান জানিয়েছেন তার ক্লায়েন্ট পুনরায় প্রিমিয়ার লিগে ফিরে যেতে আগ্রহী। এদিকে একটি সূত্র জানিয়েছে বড় কোনো প্রস্তাব না আসলে কুতিনহো হয়ত আবারো ইংল্যান্ডেই ফিরে যাবেন। এবারের গ্রীষ্মে বার্সেলোনা অর্থ উপার্জনের উৎস হিসেবে আরো কিছু খেলোয়াড়কে ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। যার মধ্যে নেলসন সেমেডো ও ইভান রাকিটিচ অন্যতম। ভবিষ্যত নিয়ে অনিশ্চয়তায় থাকা আরেক খেলোয়াড় হলেন ওসমানে দেম্বেলে। যদিও এই মুহূর্তে ইনজুরির কারণে তার ক্যারিয়ার শঙ্কার মুখে রয়েছে।

ইতোমধ্যেই বার্সেলোনা জুভেন্টাসের মিডফিল্ডার মিরালেম পিয়ানিচকে ৬০ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে আগামী মৌসুমের জন্য দলে ভিড়িয়েছে। তার পরিবর্তে ৮২ মিলিয়ন ইউরোতে আর্থার মেলোকে জুভেন্টাসের কাছে ছেড়ে দিয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা