kalerkantho

শুক্রবার । ২৩ শ্রাবণ ১৪২৭। ৭ আগস্ট  ২০২০। ১৬ জিলহজ ১৪৪১

সিনিয়রদের কথাতেও ঝাঁকড়া চুল কাটেননি ধোনি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৭ জুলাই, ২০২০ ২০:১১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সিনিয়রদের কথাতেও ঝাঁকড়া চুল কাটেননি ধোনি

দলের মাঝে সিনিয়র-জুনিয়র ব্যাপারটা থাকেই। সিনিয়রদের কথা-পরামর্শ মেনে চলতে হয়। কিন্তু মহেন্দ্র সিং ধোনি ব্যক্তিগত ব্যপারে কারও মত গুরুত্ব দিতেন না। ধোনির চুল নিয়ে কত যে কালি খরচ হয়েছে তার ইয়ত্তা নেই। সেই চুলই নাকি কেটে ফেলতে বলেছিলেন আকাশ চোপড়া। আজ ধোনির ৩৯তম জন্মদিনে এই তথ্য ফাঁস করেছেন তার সাবেক সতীর্থ।

নিজের ইউটিউব চ্যানেল 'আকাশবাণী' তে আকাশ চোপড়া বলেন, 'আমি ওকে ওর লম্বা চুল কেটে ফেলতে বলেছিলাম। জানাই এরকম লম্বা চুল রাখলে ক্রিকেট বিশ্ব ওকে সিরিয়াসলি নেবে না। তবে ধোনি বলেছিল, ওর চুল দেখেই সবাই লম্বা চুল রাখতে চাইবে।”

২০০৪ সালে 'এ' দলের হয়ে জিম্বাবুয়ে সফরে খেলতে গিয়েছিল ভারত। সেই সফরেই ধোনির রুমমেট ছিলেন আকাশ চোপড়া। সেই সফরের অভিজ্ঞতা শেয়ার করে আকাশ জানান, 'আমি ওকে জিজ্ঞাসা করি কি খাবার অর্ডার করব। ধোনির জবাব, আমার যেটা পছন্দ। আমি জিজ্ঞাসা করতাম, কখন ও ঘুমাবে! ওর সাধাসিধে জবাব, আমি যখন সুইচ অফ করব। আমি কখনই লম্বা চুলের কুল এই জুনিয়র ক্রিকেটারের কাছ থেকে এত হৃদ্যতা আশা করিনি। আমি তার থেকে 'আমি অর্ডার করছি', 'লেট করে ঘুমাই, তুমি বেডসিট মুখে চাপা দাও' এই টাইপের উত্তর আশা করেছিলাম। কিন্তু সে খুব সহজ সরল ছিল। কিন্তু ওর চালচলনে বোঝা যেত না সে কতটা জেদি।'

ধোনিকে প্রথম দেখার স্মৃতিচারণ করে আকাশ বলেন, 'ধোনির লম্বা সোনালী চুল ছিল। মুখে সাদা সানস্ক্রিন লাগাত এবং চোখে ঢাকা থাকত গগলসে। অনেকেই হয়ত চাইত ধোনি এসব খুলে রাখুক। কারণ এটা একটা ক্রিকেট মাঠ ছিল, বলিউডের সেট নয়। তবে ও এসব কথায় কান দিত না। পরে জানতে পারি যে,স্বয়ং পারভেজ মোশারফ (সাবেক পাকিস্তান প্রেসিডেন্ট) ধোনিকে চুল কাটতে নিষেধ করেছিলেন। শেষ পর্যন্ত তার আত্মবিশ্বাসের কাছে আমাদের হারতে হয়েছিল।'

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা