kalerkantho

সোমবার । ২২ আষাঢ় ১৪২৭। ৬ জুলাই ২০২০। ১৪ জিলকদ  ১৪৪১

বর্ণবাদ : আইপিএলে 'কালু' নামে ডাকা হতো স্যামিকে!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৭ জুন, ২০২০ ১৫:৩২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বর্ণবাদ : আইপিএলে 'কালু' নামে ডাকা হতো স্যামিকে!

'কালু' বা 'কাইল্যা' উপমহাদেশের খুব পরিচিত কিছু বর্ণবাদী শব্দ। সাধারণত কালো বর্ণের কাউকে এসব বলে সম্বোধন করা হয়। বাংলাদেশের জাতীয় ক্রিকেট দলের একজন তারকা বোলারকেও এই নামে ডেকে থাকেন কিছু সতীর্থ। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগও (আইপিএল) এর বাইরে নয়। যুক্তরাষ্ট্রের ৪৬ বছর বয়সী কৃষ্ণাঙ্গ জর্জ ফ্লয়েডের পুলিশের হাতে মৃত্যুর পর সারাবিশ্বে নতুন করে বর্ণবাদবিরোধী আন্দোলন দানা বেঁধে উঠেছে। এর মাঝেই আইপিএলে বর্ণবাদের শিকার হওয়ার ঘটনা ফাঁস করলেন ক্যারিবীয় তারকা ড্যারেন স্যামি।

আইপিলে খেলার সময় স্যামি বর্ণবাদের শিকার হয়েছেন! সানরাইজার্স হায়দরাবাদে খেলার সময় অনেকে তাকে 'কালু' বলে ডাকত। শুধু স্যামিকেই নয়, গায়ের রং কালো হওয়ায় শ্রীলঙ্কান অল-রাউন্ডার থিসারা পেরেরাকেও ডাকা হতো এই নামে।  এতদিন পর বিষয়টা বুঝতে পেরে ভীষণ চটেছেন স্যামি। ইনস্টাগ্রামে তিনি লিখেছেন, 'ওহ! তার মানে যখন আইপিএলে সানরাইজার্সের হয়ে থিসারা ও আমাকে 'কালু' নামে ডাকা হতো তার অর্থ এই! আমি ভাবতাম এর অর্থ 'শক্তিশালী ঘোড়া'। এর আসল মানে জানার পর প্রচণ্ড রাগ হচ্ছে।'

শুধু স্যামি নন, সতীর্থ ক্রিস গেইলও বর্ণবাদের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়েছেন। তিনি ক্যারিয়ারে অনেকবার বর্ণবিদ্বেষের শিকার হওয়ার কথাও প্রকাশ করেছেন। মানুষ হিসেবে কৃষ্ণাঙ্গদের বাঁচার অধিকারের কথা বলেছিলেন গেইল। এছাড়া গত সপ্তাহে স্যামি আইসিসি ও অন্যান্য ক্রিকেট বোর্ডের উদ্দেশে টুইট করেছিলেন, 'আমার মতো মানুষদের সঙ্গে কি ঘটছে তা কি আইসিসি ও অন্যান্য বোর্ড দেখছে না? আমাদের মতো মানুষদের সঙ্গে কি সামাজিক অবিচার হচ্ছে তার বিরুদ্ধে কি আপনারা প্রতিবাদ করবেন না? এটা শুধু যুক্তরাষ্ট্রে না, সব জায়গাতেই হচ্ছে। এখন চুপ থাকার সময় না। আমি আপনাদের কথা শুনতে চাই।'

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা