kalerkantho

বুধবার । ২৪ আষাঢ় ১৪২৭। ৮ জুলাই ২০২০। ১৬ জিলকদ  ১৪৪১

আইসিসির কাছে থুতুর বিকল্প চাইলেন বুমরাহ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১ জুন, ২০২০ ২১:০৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আইসিসির কাছে থুতুর বিকল্প চাইলেন বুমরাহ

করোনাভাইরাসের কারণে বলে ক্রিকেটের প্রধান নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি থুতু ব্যবহার নিষিদ্ধ করলে বলের উজ্জলতা ধরে রাখতে বিকল্প চান ভারতের পেসার জসপ্রীত বুমরাহ। ক্রিকেট ফেরার পর করোনাভাইরাসের সংক্রমন ঠেকাতে ও ঝুঁকি এড়াতে বলে থুতু ব্যবহার আগামী সপ্তাহে অনুষ্ঠেয় বৈঠকে নিষিদ্ধ করতে পারে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)। পুনরায় আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফেরার পর সুরক্ষার জন্য করমর্দন, আনন্দ উদযাপন, হাই-ফাইভ এবং জড়িয়ে ধরার ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা জারি করতে পারে।

আইসিসির ভিডিও শোতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাবেক পেসার ইয়ান বিশপ ও দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক অধিনায়ক শন পোলকের সাথে আলাপকালে বুমরাহ বলেন, 'আমি খুব বেশি আলিঙ্গন কিংবা হাই-ফাইভ করার মতো ছিলাম না। তাই এটি আমার জন্য খুব সমস্যা হবে না। আমার আগ্রহের একমাত্র বিষয় হলো, বলে থুতু দেয়া। আমি জানি না, যখন আমরা ফিরবো তখন আমাদের কি নির্দেশিকা অনুসরণ করতে হবে। তবে আমি মনে করি, এর বিকল্প থাকা উচিত।'

পেস বোলাররা সাধারণত ঘাম বা থুতু দিয়ে বলের এক পাশ উজ্জল রেখে বাতাসে সুইং করিয়ে থাকেন। ২০১৮ সালের পর থেকে ভারতের টেস্ট দলের পেস অ্যাটাককে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে আসা বুমরাহ আরও জানান, 'বলটি সঠিকভাবে মেইনটেইন করা না গেলে তা বোলারদের জন্য কঠিনই হবে। মাঠগুলো ছোট থেকে ছোট হচ্ছে, উইকেট ফ্লাট থেকে ফ্লাটই হচ্ছে। তাই আমাদের কিছু প্রয়োজন।'

থুতু নিষিদ্ধ করার সুপারিশ করেছেন ভারতের অনিল কুম্বলের নেতৃত্বাধীন আইসিসির ক্রিকেট কমিটি। তবে পদক্ষেপটি কেবল অন্তর্বতীকালীন ব্যবস্থা হিসেবেই ছিল। অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট বল প্রস্তুতকারক কোকাবুরা সম্প্রতি জানিয়েছিল, থুতু বা ঘাম ব্যবহারের পরিবর্তে বলে মোমের মত একটি প্রলেপ বাজারে আনবে। কিন্তু এটি ব্যবহারের জন্য ক্রিকেটের আইনে পরিবর্তন আনা প্রয়োজন, যাতে কৃত্রিম পদার্থ ব্যবহার করা যায়।

অতীতে বলের উজ্জলতা ধরে রাখার জন্য টেস্ট খেলোয়াড়দের বিপক্ষে লজেন্স, পেট্রোলিয়াম জেলি ব্যবহারের অভিযোগ আনা হতো। এছাড়াও, বোতলের মুখ-ট্রাইজারের জিপার ও পাথরের দানা ও নখ ব্যবহারের অভিযোগও ছিল। অতি সম্প্রতি বল বিকৃতির সর্বশেষ ঘটনা ঘটেছিল ২০১৮ সালে। কেপ টাউনে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টেস্টে শিরিষ-কাগজ দিয়ে বল বিকৃতি করেছিল অস্ট্রেলিয়ান খেলোয়াড়রা। যেখানে জড়িত ছিলেন- স্টিভেন স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার ও ক্যামেরন বেনক্রফট। পরে তাদের বিভিন্ন মেয়াদে সাজাও হয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা