kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ৪ জুন ২০২০। ১১ শাওয়াল ১৪৪১

করোনা মোকাবেলায় শচীনের ডাবল সেঞ্চুরি থেকে শিখুন : ব্রায়ান লারা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৬ এপ্রিল, ২০২০ ১৭:১৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



করোনা মোকাবেলায় শচীনের ডাবল সেঞ্চুরি থেকে শিখুন : ব্রায়ান লারা

২০০৪ সালে সিডনিতে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে অপরাজিত ২৪১ রান করেছিলেন ভারতের সাবেক মাস্টার ব্লাস্টার ব্যাটসম্যান শচীন টেন্ডুলকার। তার ২৪ বছরের ক্রিকেট ক্যারিয়ারে ঐ ইনিংসটিই সেরা বলে মন্তব্য করলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাবেক অধিনায়ক ব্রায়ান লারা। আর ঐ ইনিংসকে উদাহরণ হিসেবে সামনে রেখে করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের ডাক দিয়েছেন ক্রিকেটের বরপুত্রখ্যাত এই কিংবদন্তি।

ইনস্টাগ্রামে লারা লিখেছেন, 'ভাবা যায়, ১৬ বছর বয়স থেকে শুরু করে পরের ২৪ বছর ধরে একটা ছেলে টেস্ট ক্রিকেট খেলেছে? অবিশ্বাস্য লাগে ভাবলে। টেস্ট জীবনে অনেক দুর্দান্ত ইনিংস খেলেছে টেন্ডুলকার। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিডনিতে তার অপরাজিত ২৪১ রানের ইনিংস ভোলা যাবে না। ওমন মানসিক দৃঢ়তা ও শৃঙ্খলা আমি আর কোনো ইনিংসে দেখিনি।'

টেন্ডুলকারের সেই ইনিংসকে উদাহরণ হিসেবে সামনে রেখে করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের ডাক দিয়েছেন লারা। তিনি বলেন, 'টেন্ডুলকার শুধু অতীতের নয়, এখনকার ক্রিকেটের নিরিখেও বিশ্বের অন্যতম সেরা। আমরা তার কাছ থেকে অনেক কিছু শিখতে পারি। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে তার অপরাজিত ২৪১ রানের ইনিংস দেখে আমরা শিখতে পারি জীবনের লড়াইয়ে কতটা শৃঙ্খলাপরায়ণ হওয়া উচিত।'

২০০৪ সালের ঐ সফরে সিডনিতে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে চার ম্যাচ সিরিজের শেষ টেস্ট খেলতে নেমেছিলো ভারত। টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং বেছে নেন ঐ সময় ভারতের অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলী। টেন্ডুলকারের ২৪১ ও ভিভিএস লক্ষণের ১৭৮ রানে ৭ উইকেটে ৭০৫ রান করেছিলো ভারত। ৪৩৬ বল ও ৬১৩ মিনিট ক্রিজে থেকে ৩৩টি চারে নিজের অসাধারণ ইনিংসটি সাজান টেন্ডুলকার। দ্বিতীয় ইনিংসেও অপরাজিত ৬০ রান করেছিলেন টেন্ডুলকার। ম্যাচটি শেষ পর্যন্ত ড্র হয়। আর সিরিজ ১-১ সমতায় শেষ করে ভারত। ডাবল-সেঞ্চুরিতে ম্যাচ সেরা হয়েছিলেন টেন্ডুলকার।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা