kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ৪ জুন ২০২০। ১১ শাওয়াল ১৪৪১

'মেসিই প্রথম বলেছিল' - সাক্ষ্য দিলেন বার্সা প্রেসিডেন্ট

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১ এপ্রিল, ২০২০ ১৭:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



'মেসিই প্রথম বলেছিল' - সাক্ষ্য দিলেন বার্সা প্রেসিডেন্ট

করোনাভাইরাসের কারণে আর্থিক সংকটে পড়ে গেছে ক্লাবগুলো। এর মাঝে বার্সেলোনার খেলোয়াড়দের বেতন কর্তন নিয়ে গত কয়েকদিন ধরে তুলকালাম হয়েছে। কদিন আগে গণমাধ্যমে খবর আসে, বার্সেলোনা খেলোয়াড়দের বেতন ৭০ শতাংশ কাটার সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে এবং খেলোয়াড়রা তাতে সম্মত নয়। এই খবরের পর গত সোমবার সোশ্যাল সাইটে বিস্ফোরণ ঘটনা লিওনেল মেসি। তিনি দাবি করেন, খেলোয়াড়েরাই সবার আগে বলেছিল বেতন কাটতে। এবার মেসির কথার সত্যতা প্রমাণ করলেন বার্সা প্রেসিডেন্ট জোসেফ মারিয়া বার্তামেউ।

শীর্ষ কাতালান দৈনিক স্পোর্তকে দেওয়া সাক্ষাতকারে বার্তোমেউও জানান, মেসি কখনই বার্সেলোনার বেতন কাটার সিদ্ধান্তে বিরোধিতা করেনি। তার ভাষায়, 'প্রথম দিন থেকেই মেসি আমাকে বলে আসছিল, এই বেতন কমাতেই হবে। এই প্রস্তাব এসেছিল অধিনায়কের কাছ থেকে। এটা এমন কিছু যা ক্লাবের প্রতি তাদের দায়বদ্ধতা ফুটিয়ে তোলে। সবকিছু না জেনে ক্লাবের ভেতরের ও বাইরের মানুষ যা বলেছে, তাতে খেলোয়াড়রা হতাশ হয়েছে। আশা করি এটা নিয়ে আর ভুল বোঝাবুঝি হবে না।'

এর আগে অধিনায়ক মেসি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জানান, সঙ্কটকালীন সময়ে ক্লাবের অন্য কর্মচারীরা যেন শতভাগ বেতন পান, এর জন্য সব ধরনের সহযোগিতা করতে তারা প্রস্তুত। এরপরই জরুরি অবস্থা থাকাকালীন সময়ে খেলোয়াড়দের বেতনের ৭০ শতাংশ কেটে নেওয়া হবে বলে জানায় বার্সেলোনা। মেসির ওই প্রতিবাদের পর তাকে 'বার্সেলোনার চে গেভারা' হিসেবে উল্লেখ করছে স্প্যানিশ মিডিয়াগুলো। সবক্ষেত্রে যিনি সতীর্থদের আগলে রাখেন, নেতৃত্ব দিয়ে যান তিনিই তো প্রকৃত অধিনায়ক।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা