kalerkantho

সোমবার । ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০। ৪ ফাল্গুন ১৪২৬। ২২ জমাদিউস সানি ১৪৪১

'দমবন্ধ পরিবেশে' পাকিস্তানে খেলবে টাইগাররা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৩ জানুয়ারি, ২০২০ ১৯:১৮ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



'দমবন্ধ পরিবেশে' পাকিস্তানে খেলবে টাইগাররা

লাহোর স্টেডিয়ামের বাইরে যেন যুদ্ধাবস্থা! ছবি : এএফপি

বিমান থেকে নামা থেকে শুরু করে সদা সর্বদা টাইগারদে ঘিরে রেখেছে সশস্ত্র সেনা সদস্যরা। তাদের হাতে অত্যাধুনিক সব রাইফেল। রাস্তা, স্টেডিয়াম এমনকী হোটেলের লবিতে পর্যন্ত নিরাপত্তারক্ষীতে গিজগিজ করছে। পরিস্থিতি যে এমনই হবে তা আগে থেকে জানা ছিল বাংলাদেশ দলের। লাহোরের পা রেখে সৈন্যসামন্ত নিয়ে চলতে হবে। হোটেল থেকে এক পা বের হলেও ঘিরে থাকবে সশস্ত্র সৈন্যসামন্ত। সর্বক্ষণ চারদিকে অস্ত্র দেখতে হলে এমন দমবন্ধ পরিবেশ কি ক্রিকেটর জন্য উপযোগী? 

তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথমটি শুরু হবে শুক্রবার বাংলাদেশ সময় বিকেল ৩টায়। সর্বশেষ ২০০৮ সালের পর প্রথমবারের মত পাকিস্তান সফর করছে বাংলাদেশ। অবশ্য ২০০৯ সালে শ্রীলঙ্কা দল বহনকারী বাসে সন্ত্রাসী হামলার পর পাকিস্তানের মাটিতে খেলতে যায়নি বিশ্বের অন্য ক্রিকেট দলগুলো। সম্প্রতি ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও শ্রীলঙ্কা দলের সফর এবং আইসিসি থেকে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশীপের জন্য চাপ থাকায় বাধ্য হয়েই পাকিস্তান সফরে বাংলাদেশ। এমন অবস্থায় নিরাপত্তা নিয়ে চিন্তা-ভাবনা বাদ দিয়ে ক্রিকেটের প্রতি নজর রাখছে বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। 

চার মাসে তিন দফায় পাকিস্তান সফর করবে বাংলাদেশ। প্রথম দফায় তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ। দ্বিতীয় দফায় ১টি টেস্ট এবং তৃতীয় দফায় ১টি করে ওয়ানডে ও টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ। তবে এখন টেস্ট ও ওয়ানডে নিয়ে চিন্তা করতে রাজি নয় বাংলাদেশ। টি-টোয়েন্টি সিরিজ নিয়েই বেশি মনোযোগি মাহমুদুুল্লাহর দল। সাম্প্রতিক পারফরমেন্সের কারনে পাকিস্তানের বিপক্ষে ভালো করতে আত্মবিশ্বাসী বাংলাদেশ। সর্বশেষ ১০ ম্যাচের মধ্যে ৫টিতে জয় ও ৫টিতে হেরেছে বাংলাদেশ। এরমধ্যে ভারতকে হারানো ছিলো উল্লেখযোগ্য। অপরদিকে, পাকিস্তানের অবস্থা নাজেহাল। সর্বশেষ ১০ ম্যাচের মধ্যে মাত্র ১টিতে জয় পেয়েছে পাকিস্তান। ৮টিতে হেরেছে। 

বাংলাদেশও তাদের সেরা দুই খেলোয়াড় মুশফিকুর রহিম ও সাকিব আল হাসানকে ছাড়া খেলতে নামবে। পাকিস্তানে নিরাপত্তা শংকার কারণে সফর থেকে নিজতে গুটিয়ে রেখেছে মুশফিকুর রহিম। আর জুয়াড়ির তথ্য গোপন করায় আইসিসি কর্তৃক এক বছরের নিষেধাজ্ঞায় আছেন সাকিব। এমন পরিস্থিতিতে পাকিস্তানে খেলা নিয়ে টাইগার ক্যাপ্টেন মাহমুদউল্লাহ বলেছেন, 'এমন পরিবেশে দলের সদস্যরা একসঙ্গে সময় কাটাতে পারে। এভাবে যদি দেখবা হয়, তাহলে এটা দলের জন্য ইতিবাচক।' 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা