kalerkantho

রবিবার । ১৯ জানুয়ারি ২০২০। ৫ মাঘ ১৪২৬। ২২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

অকাল প্রয়াত ক্রীড়া সাংবাদিকের প্রতি বিপিএলের শ্রদ্ধা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ ডিসেম্বর, ২০১৯ ২১:১১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অকাল প্রয়াত ক্রীড়া সাংবাদিকের প্রতি বিপিএলের শ্রদ্ধা

চলতি বঙ্গবন্ধু প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) মাঝেই ক্রীড়াঙ্গনে নেমে এল এক দুঃসংবাদ। বড্ড অকালে না ফেরার দেশে পাড়ি জমিয়েছেন ক্রীড়া সাংবাদিক দীপায়ন মজুমদার অর্ণব। এই খবর ছড়িয়ে পড়তেই ক্রীড়া সাংবাদিক, বিসিবির কর্মকর্তা এমনকী ক্রিকেটারদের মধ্যে শোকের আবহ নেমে আসে। অর্ণবের মৃত্যুতে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) শোক প্রকাশ করেছে। এরপর আজ শুক্রবার ঢাকা প্লাটুন বনাম সিলেট থান্ডার্সের ম্যাচ চলাকালীন সময়ে মাঠের জায়ান্ট স্ক্রিনে ভেসে উঠে দীপায়ন অর্ণবের ছবি এবং শোকবার্তা।

অর্ণবের ঘনিষ্টজনেরা বলেছে, আজ শুক্রবার দুপুরে অসুস্থবোধ করায় ওষুধ কিনতে বাইরে গিয়েছিলেন অর্ণব। তখন তিনি আরও অসুস্থ হয়ে পড়েন। দক্ষিণখান থানার এসআই ইব্রাহিম বলেন, 'ফার্মেসি মালিকের কাছ থেকে আমরা যতটুকু জেনেছি,ওষুধ কিনতে এসে রাস্তার ওপর পড়ে যায় অর্ণব। খবর পেয়ে আমরা এসে হাসপাতালে নিয়ে যাই।' এরপর রাজধানীর দক্ষিণখানে কেসি হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তৃব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল মাত্র ২৭ বছর।

হাসপাতালের ডাক্তাররা নিশ্চিত করেছেন যে, হাসপাতালে আনার আগেই মারা যান অর্ণব। তারা জানিয়েছেন, হার্ট অ্যাটকে আক্রান্ত হয়ে তিনি মারা গেছেন। অর্ণবের বাবা দিলীপ কুমার মজুমদার মারা গেছেন আগেই।, মা ঝুনু রানী সরকার একজন অবসরপ্রাপ্ত নার্স। গ্রামের বাড়িতে থাকেন। একমাত্র বোন সুভদ্রা উর্মিলা মজুমদার পেশায় চিকিৎসক। তিনি বর্তমানে উচ্চতর ডিগ্রি নেওয়ার জন্য ভারতের চেন্নাইয়ে অবস্থান করছেন।

উল্লেখ্য, খেলাধুলার প্রতি ভালোবাসা থেকেই ক্রীড়া সাংবাদিকতা শুরু করেন একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ুয়া অর্ণব। গত অক্টোবরে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমে যোগ দেন। মৃত্যুর আগ পর্যন্ত সেখানে তিনি ক্রীড়া বিভাগের সহ সম্পাদক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। এর আগে তিনি ৩ বছর দৈনিক সমকালের ক্রীড়া বিভাগে কাজ করেছেন। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা