kalerkantho

মঙ্গলবার । ২১ জানুয়ারি ২০২০। ৭ মাঘ ১৪২৬। ২৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

অবসর ভেঙে ক্রিকেটে ফিরছেন 'ডিজে ব্র্যাভো'

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ ডিসেম্বর, ২০১৯ ১৭:৪৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অবসর ভেঙে ক্রিকেটে ফিরছেন 'ডিজে ব্র্যাভো'

হুট করেই গত বছরের অক্টোবরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানিয়েছিলেন ক্যারিবীয় তারকা ডোয়েন ব্র্যাভো। পরে ক্যারিবীয় বোর্ডের অন্দরমহলে ক্ষমতার হাতবদল হওয়ায় সিদ্ধান্ত বদলের সংকেত দিয়েছিলেন। বিশেষ করে নতুন অধিনায়কের হাতে জাতীয় দলের দায়িত্ব বর্তানোর পর অবসর ভেঙে ফেরার স্পষ্ট ইঙ্গিত দেন ডোয়েন ব্র্যাভো। এবার আনুষ্ঠানিকভাবে ফেরার ঘোষণা দিয়ে দিলেন এই তারকা অল-রাউন্ডার কাম কণ্ঠশিল্পী।

বোর্ড কর্মকর্তাদের অনীহায় দীর্ঘদিন জাতীয় দলের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করতে পারেননি ব্র্যাভো। বিশ্বব্যাপী ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি লিগে তিনি অন্যতম সেরা মুখ হয়ে উঠলেও জাতীয় নির্বাচকরা মুখ ফিরিয়ে ছিলেন ব্র্যাভোর দিক থেকে। উপেক্ষিত হতে হতে ক্লান্ত ব্র্যাভো গত বছর অক্টোবরে জানিয়ে দেন যে, তিনি আর কখনও ওয়েস্ট ইন্ডিজ জাতীয় দলের হয়ে মাঠে নামবেন না। অবশেষে আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের কথা মাথায় রেখে অবসর ভেঙে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরে আসার সিদ্ধান্ত নিলেন ডিজে ব্র্যাভো। তবে শুধুমাত্র সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটেই।

প্রত্যাবর্তনের ঘোষণা দিয়ে এক বিবৃতিতে ব্র্যাভো জানিয়েছেন, নির্বাচকেরা চাইলে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটের জন্য তাকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলে বিবেচনা করা যেতে পারে। ব্র্যাভোর ভাষায়, 'বিশ্বব্যাপী আমার শুভাকাঙ্খী ও অনুরাগীদের উদ্দেশ্যে জানাচ্ছি যে, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরে আসার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এটা এখন আর কোনো গোপন খবর নয় যে, এই বড় ঘোষণার পিছনে ক্যারিবীয় বোর্ডের প্রশাসনিক রদবদলই অন্যতম প্রধান কারণ। এখন কোচ আছেন ফিল সিমন্স আর অধিনায়ক পোলার্ড। ফিরতে পারলে সত্যিই ব্যাপারটা দারুণ হবে।'

৩৬ বছর বয়সী ব্র্যাভো ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে ৪০টি টেস্ট, ১৬৪টি ওয়ানডে ও ৬৬টি আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন। টেস্টে ২২০০ রান ও ৮৬ উইকেট রয়েছে ব্র্যাভোর ঝুলিতে। ওয়ানডে ক্রিকেটে সংগ্রহ করেছেন ২৯৬৮ রান ও ১৯৯ উইকেট। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ১১৪২ রান ও ৫২টি উইকেট রয়েছে ব্র্যাভোর। তবে এই বয়সে তাকে নিয়ে নতুন করে ক্যারিবীয় বোর্ড ভাববে কিনা সেটা সময়ই বলে দেবে। তবে ব্র্যাভোর ফেরার ঘোষণায় আপাতত আনন্দিত তার ভক্তরা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা