kalerkantho

মঙ্গলবার । ২১ জানুয়ারি ২০২০। ৭ মাঘ ১৪২৬। ২৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

আইপিএলে ২ কোটি বেইজ প্রাইসের ৭ ক্রিকেটার

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ ডিসেম্বর, ২০১৯ ১৭:১৯ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



আইপিএলে ২ কোটি বেইজ প্রাইসের ৭ ক্রিকেটার

আগামী ১৯ ডিসেম্বর কলকাতায় বসবে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) নিলাম। মোট ৩৩২ জন ক্রিকেটার থেকে পছন্দ করবে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো। প্রাথমিকভাবে ৯৯৭ জন ক্রিকেটারের নাম নথিভুক্ত হয়েছিল। তার মধ্যে থেকে নিলামে উঠবেন মাত্র ৩৩২ জন। এর মধ্যে ১৮৬ জন ভারতীয়, ১৪৩ বিদেশি আর ৩ জন সহযোগী দেশের। এদের মধ্যে ২ কোটি রুপি বেইজ প্রাইস রয়েছে মাত্র ৭ জনের। এবার দেখে নেওয়া যাক কোন কোন ক্রিকেটার সর্বোচ্চ বেইজ প্রাইস পেলেন।

প্যাট কামিন্স (বেইজ প্রাইস ২ কোটি রুপি): অস্ট্রেলিয়ার ডান হাতি পেসার এখনও পর্যন্ত দেশের হয়ে ২৫ টি-টোয়েন্টি খেলেছেন। ২০.১২ গড়ে নিয়েছেন ৩২ উইকেট। ইকনমি রেট ৬.৭৭। এই মুহূর্তে বিশ্বের সেরা পেসারদের একজন তিনি। আইপিএলে দিল্লি ডেয়ারডেভিলস, কলকাতা নাইট রাইডার্স, মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে খেলার অভিজ্ঞতা আছে তার।

জশ হ্যাজেলউড (বেইজ প্রাইস ২ কোটি রুপি): ডানহাতি এই অস্ট্রেলিয়ান পেসার জানুয়ারিতে ২৯ বছরে পা দেবেন। দেশের হয়ে ৭ টি-টোয়েন্টিতে নিয়েছেন ৮ উইকেট। গড় ৩৩.৬২, ইকনমি রেট ৯.৬০। ৩০ রানে ৪ উইকেট তার সেরা বোলিং। আইপিএলে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সে খেলেছেন।

ক্রিস লিন (বেইজ প্রাইস ২ কোটি রুপি): গত মৌসুমে হতাশ করায় কলকাতা নাইট রাইডার্স ছেড়ে দিয়েছিল ক্রিস লিনকে। ফলে নিলামে উঠছেন অস্ট্রেলিয়ার ডানহাতি ওপেনার। আইপিএলে শুধু কেকেআর নয়, ডেকান চার্জার্স, সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়েও খেলেছেন তিনি। দেশের হয়ে ১৮ টি-টোয়েন্টিতে ১৯.৪০ গড়ে ২৯১ রান করেছেন লিন।

মিচেল মার্শ(বেইজ প্রাইস ২ কোটি রুপি): অল-রাউন্ডার বলেই শন মার্শের ভাইয়ের গুরুত্ব বেশি। দেশের হয়ে ১১ টি-টোয়েন্টিতে ২১.৮৭ গড়ে ১৭৫ রান করেছেন তিনি। অজি ডানহাতি পেসার ২৬ গড়ে নিয়েছেন ৬ উইকেট। আইপিএলে এর আগে ডেকান চার্জার্স, পুনে ওয়ারিয়র্স, রাইজিং পুনে সুপারজায়ান্টস দলে খেলেছেন তিনি।

গ্লেন ম্যাক্সওয়েল (বেইজ প্রাইস ২ কোটি রুপি): আইপিএলে বড় তারকা হলেন এই অজি অল-রাউন্ডার। ব্যাট হাতে গ্যালারিতে বল উড়িয়ে ফেলতে তার জুড়ি নেই। বোলারকে চমকে দেওয়ার মতো শটও খেলার সহজাত ক্ষমতা আছে ম্যাক্সির। টি-টোয়েন্টিতে দেশের হয়ে ৬১ ম্যাচে ৩৫.০২ গড়ে ১৫৭৬ রান করেছেন তিনি। ৩ সেঞ্চুরিও আছে। বল হাতে নিয়েছেন ২৬ উইকেট।

ডেল স্টেইন (বেইজ প্রাইস ২ কোটি রুপি): এই প্রজন্মে বিশ্ব ক্রিকেটের সেরা পেসারদের মধ্যে অন্যতম। বয়সটা একটু বেড়ে গেলেও চাহিদা মোটেও কমে যায়নি। আইপিএলেও খেলছেন দীর্ঘদিন ধরে। ডেকান চার্জার্স, গুজরাত লায়ন্স, রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর, সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে খেলেছেন। দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে ৪৪ টি-টোয়েন্টিতে নিয়েছেন ৬১ উইকেট।

অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজ (বেইজ প্রাইস ২ কোটি রুপি): ৩২ বছর বয়সী শ্রীলঙ্কার সাবেক অধিনায়ক অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজের অভিজ্ঞতার ঝুলি পরিপূর্ণ। আইপিএলে দিল্লি ডেয়ারডেভিলস, কলকাতা নাইট রাইডার্স, পুনে ওয়ারিয়র্সের হয়ে খেলেছেন। দেশের হয়ে ৭২ টি-টোয়েন্টিতে ২৭.০৫ গড়ে করেছেন ১০৫৫ রান। নিয়েছেন ৩৭ উইকেট।

রবিন উত্থাপা (বেইজ প্রাইস ১.৫ কোটি রুপি) : ভারতীয় ক্রিকেটারদের মধ্যে নিলামে সবচেয়ে বেশি বেইজ প্রাইস রবিন উথাপ্পার। তার বেইজ প্রাইস ১.৫ কোটি রুপি। তবে গত মৌসুমে মাত্র একটা হাফ সেঞ্চুরি করায় তাকে দলে রাখেনি কলকাতা নাইট রাইডার্স। যদিও একসময় কেকেআরকে অনেক স্মরণীয় মুহূর্ত উপহার দিয়েছেন তিনি। দেশের হয়ে ১৩ টি-টোয়েন্টিতে ২৪৯ রান করেছেন উথাপ্পা। এছাড়া পীযুষ চাওলা, ইউসুফ পাঠান, উনাদকাটদের বেইজ প্রাইস ১ কোটি রুপি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা