kalerkantho

বুধবার । ২৯ জানুয়ারি ২০২০। ১৫ মাঘ ১৪২৬। ৩ জমাদিউস সানি ১৪৪১     

পোলার্ডকেই অধিনায়ক হিসেবে চান ব্রায়ান লারা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৭ ডিসেম্বর, ২০১৯ ১৬:১২ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



পোলার্ডকেই অধিনায়ক হিসেবে চান ব্রায়ান লারা

অধিনায়ক হিসেবে নবাগত হলেও অভিজ্ঞতার কারণে কাইরন পোলার্ডের অধীনে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ভাল করবে মনে করছেন কিংবদন্তি ব্রায়ান লারা। আগামী বছর অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে অনুষ্ঠিতব্য টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ক্যারিবিয় দলকে শক্তিশালী করতে পোলার্ডের অভিজ্ঞতা একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে বলেও মনে করছেন লারা। গত সেপ্টেম্বরে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সীমিত ওভার দলের দায়িত্ব পান পোলার্ড। তুলনামূলক কম অভিজ্ঞতাসম্পন্ন একটি দল নিয়েই আজ স্বাগতিক শক্তিশালী ভারতের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে দলকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন তিনি।

অধিনায়কত্ব পাওয়ার পর পোলার্ডের নেতৃত্বে সম্প্রতি ভারতের মাটিতে আফগানিস্তানের বিপক্ষে একটি ওযানডে ও একটি টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। স্থায়ী অধিনায়ক হিসেবে ভারত সিরিজ পোলার্ডের দ্বিতীয় এসাইনমেন্ট। গতকাল প্রথম টি-টোয়েন্টিতে পরাক্রমশালী দলটির কাছে হেরে গেছে পোলার্ডের দল। সিরিজের আরও দুই ম্যাচ বাকী। আফগানিস্তানকে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজে হোয়াইটওয়াশ করলেও সমসংখ্যক ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে ১-২ ব্যবধানে পরাজিত হয়েছে ওয়েষ্ট ইন্ডিজ।

সংক্ষিপ্ত ভার্সনের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ২০১৬ আসরের ফাইনালে ইংল্যান্ডকে হারিয়ে মিরোপা জিতেছিল ক্যারিবিয়রা। কিন্তু তারপর থেকে এ ফরমেন্টে তাদের পারফরমেন্স দিনকে দিন খারাপ হয়েছে। এ সময়ে ২৯টি মধ্যে কেবলমাত্র ১২টি ম্যাচ জিতেছে তারা। মুম্বাইয়ে এক অনুষ্ঠানে লারা বলেন, '১২ বছর আগে তাকে বিশ্বকাপের জন্য প্রথমবার জাতীয় দলে ডাকার ঘটনাটি আমার মনে আছে। হতে পারে তারপর থেকে সে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে খুব বেশি কিছু দিতে পারেনি। তবে সমগ্র বিশ্ব জুড়ে কাইরন বিভিন্ন লিগে খেলে নিজের সামর্থ্য প্রমাণ করেছে।'

আগামী এক বছরের মধ্যে দুটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলবে পোলার্ড এন্ড কোং। আগামী অক্টোবর-নভেম্বরে অস্ট্রেলিয়ায় এবং এরপর ২০২১ সালে একই সময়ে ভারতেরে মাটিতে। তবে পোলার্ডের অভিজ্ঞতা দলের জন্য সহায়ক হবে মনে করছেন ৫০ বছর বয়সী লারা।তিনি বলেন, 'সম্ভবত অবশ্যই একটা পরিকল্পনা আছে। কমবেশি ১২ মাস পর বিশ্বকাপ এবং বোর্ড একজন যথার্থ ব্যক্তিকেই অধিনায়ক হিসেবে চায়। নেতা হিসেবে সারা মাঠ জুড়ে থাকার দক্ষতা এবং অভিজ্ঞতা পোলার্ডের আছে। আমি মনে করি এটা একটা ভাল সিদ্ধান্ত। তবে এ জন্য অনেক লড়াই করতে হবে।'

আফগানিস্তানের কাছে সিরিজ হার ক্যারিবিয়ান দলের জন্য একটা সতর্ক সংকেত হতে পারে। তবে লারার মতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ এমন একটা দল যাদেরকে 'ভয়' করতেই হবে। লারার মন্তব্য, 'ওয়েস্ট ইন্ডিজ দুই বারের চ্যাম্পিয়ন হলেও তাদের মতোই বিশ্বের অনেক দলই ক্রিকেটের এই সংক্ষিপ্ত ভার্সনে এই দলটি (আফগানিস্তান) সম্পর্কে ভীত। যদিও তারা নতুন দল, তবু দারুণ খেলছে। তবে বিশ্বকাপের আগে তাকে এ ম্যাচগুলো দিয়ে তাকে (পোলার্ড) দলটি গড়ে নিতে হবে। ভারতের মাটিতে ভারতের বিপক্ষ খেলা সব সময়ই কঠিন চ্যালেঞ্জ।'

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা