kalerkantho

সোমবার । ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯। ১ পোষ ১৪২৬। ১৮ রবিউস সানি                         

পাকিস্তান সফর : সরকারের সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় বিসিবি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩ ডিসেম্বর, ২০১৯ ১৮:৪০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



পাকিস্তান সফর : সরকারের সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় বিসিবি

সরকারের সবুজ সংকেত না পেলে পাকিস্তানের মাটিতে কোনো সিরিজ খেলতে যাবে না বাংলাদেশ। এর চেয়ে কোনো নিরপেক্ষ ভেন্যুতে সিরিজ খেলার বিষয়ে বিসিবি পাকিস্তানের সঙ্গে আলোচনায় বসতে চায়। নিরাপত্তা পর্যবেক্ষন করতে সম্প্রতি বাংলাদেশ সরকারের একটি প্রতিনিধি দল পাকিস্তান সফর করেন। তবে তারা এখনো সফরের জন্য বিসিবিকে সবুজ সংকেত দেয়নি। তাই আসন্ন দুই টেস্টের দ্বিপাক্ষিক সিরিজটি কোন নিরপেক্ষ ভেন্যুতে আয়োজন করতে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডকে(পিসিবি) প্রস্তাব দেবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

বিসিবির ক্রিকেট অপারেকশন কমিটির চেয়ারম্যান আকরাম খান বলেন, 'সরকারের পক্ষ থেকে সবুজ সংকেত পেলে আমরা পাকিস্তানের সাথে আলোচনা শুরু করব। কিন্তু আমরা এখন পর্যন্ত কোনো সংকত পাইনি। সব কিছুই নির্ভর করছে সরকারের ওপর। একই সাথে সরকারের সংকেত পলেও আমরা খেলোয়াড়দের সঙ্গে বসব। তবে কোন কারণে সরকারের কাছ থেকে ছাড়পত্র না পেলে আমাদের নিরপেক্ষ ভেন্যুতে সিরিজ আয়োজনের আলোচনা করতে হবে। এই মুহূর্তে নিরাপত্তা প্রতিবেদনের জন্য আমরা অপেক্ষা করছি।'

আলাদা আলাদা সময়ে টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ আয়োজনের বিষয়েও পাকিস্তানের সঙ্গে আলোচনা করা হবে জানান আকরাম।বিস্তারিত ব্যাখ্যা না দিয়ে আকরাম বলেন ইতোমধ্যে বাংলাদেশ নারী ও যুব দল পাকিস্তান সফর করেছে। কিন্তু পুরুষ জাতীয় দলের সফরটি ভিন্ন বিষয়। আগামী ফেব্রুয়ারিতে পাকিস্তানের বিপক্ষে ২টি টেস্ট ও তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলার সূচি রয়েছে।

২০০৯ সালে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দল বহনকারী বাসে সন্ত্রাসী হামলার পর ইতোমধ্যে পাকিস্তানে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফিরেছে।
ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও শ্রীলঙ্কার মত দল সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্য পাকিস্তান সফর করেছে। তবে বাংলাদেশ সরকার অতীতে পাকিস্তান সফরের অনুমতি দেয়নি। ২০০৮ সালে সর্বশেষ পাকিস্তান সফর করেছিল বাংলাদেশ দল। ঐ সিরিজের ব্যাট ও বল হাতে দুর্দান্ত পারফরমেন্সের মাধ্যমে ক্রিকেট বিশ্বে নিজেকে সেরা অলরাউন্ডার হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেন সাকিব আল হাসান।

তবে দশ বছর পর আবারো পাকিস্তানে টেস্ট ক্রিকেট ফিরতে যাচ্ছে। বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অংশ হিসেবে চলতি মাসে রাওয়ালপিন্ডি ও করাচিতে ২টি ম্যাচ খেলবে শ্রীলঙ্কা। পাকিস্তানের বিপক্ষে আসন্ন টেস্ট সিরিজের জন্য গত শুক্রবার ১৬ সদস্যের দল ঘোষণা করে শ্রীলঙ্কা। নিয়মিত অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নে নেতৃত্বে পাকিস্তানের উদ্দেশ্যে আগামী ৮ ডিসেম্বর দেশ ছাড়বে সাবেক বিশ্বকাপজয়ীরা। ১১ ডিসেম্বর থেকে শুরু হবে টেস্ট সিরিজ।

শ্রীলঙ্কা দলের সফরের সঙ্গে আমাদের কোন সম্পর্ক নেই উল্লেখ করে আকরাম বলেন, বিসিবি সরকারের সিদ্ধান্তের জন্য অপেক্ষা করবে। তিনি বলেন, 'কে সেখানে যাচ্ছে সেটা আমাদের দেখার বিষয় নয়। যদি আমরা সরকারের পক্ষ থেকে ছাড়পত্র পাই, তবে আমরা সফর নিয়ে চিন্তা করবো। আমি শুরুতেই বলেছি, এই মুহূর্তে আমরা সরকারের সিদ্ধান্তের জন্য অপেক্ষা করছি।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা