kalerkantho

শুক্রবার । ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৫ রবিউস সানি          

গোলাপি বলে টাইগারদের জন্য ভয়ঙ্কর হয়ে উঠতে পারেন শামি!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ নভেম্বর, ২০১৯ ১৮:০২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গোলাপি বলে টাইগারদের জন্য ভয়ঙ্কর হয়ে উঠতে পারেন শামি!

আগামী ২২ নভেম্বর থেকে কলকাতার ইডেনে শুরু হচ্ছে বাংলাদেশ ও ভারত মধ্যেকার দুই টেস্ট সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট। তবে এই টেস্টটি অন্যগুলোর চেয়ে আলাদা। কারণ টেস্টটি ক্রিকেট ইতিহাসের প্রথম দিবা-রাত্রির টেস্ট। যার সাক্ষী থাকবে দুই দেশ। আর তাই এই টেস্ট ঘিরে উত্তেজনার পারদ তুঙ্গে। এরই মধ্যে এই টেস্টের চার দিনের সব টিকিট বিক্রি হয়ে গেছে বলে জানিয়েছে ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন অব বেঙ্গল (সিএবি)।

গোলাপি বলে বাংলাদেশ বধে ফ্যাক্টর হয়ে দাঁড়াতে পারেন মোহাম্মদ শামি। ইন্দোরে সিরিজের প্রথম টেস্টে বাংলাদেশকে একাই বল হাতে শেষ করে দেন তিনি। ইডেনেও গোলাপি বলে আগুন ঝড়াতে চলেছেন টিম ইন্ডিয়ার এই ডানহাতি পেসার। ভারতীয় পেসারদের মধ্যে রাতের আলোয় গোলাপি বলে প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে একমাত্র শামিরই। বছর চারেক আগে সিএবি সুপার লিগে গোলাপি বলে দিবা-রাত্রির ম্যাচ খেলেছিলেন শামি।

ইডেনে গোলাপি বলে দিবা-রাত্রির টেস্টে এটাই শামির প্রধান অস্ত্র হতে চলেছে। এই মুহূর্তে দুরন্ত ফর্মে রয়েছেন শামি। বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ইন্দোরে প্রথম টেস্টে দু’ইনিংসে শামির সংগ্রহ যথাক্রমে ২৭ রানে তিন উইকেট এবং ৩১ রানে চার উইকেট। তার বিধ্বংসী বোলিংয়ের ফলে তিন দিনের আগেই হেরে যায় বাংলাদেশ। ইডেনে ঐতিহাসিক গোলাপি বলে টেস্ট নিয়ে শামি জানান, একজন বোলারকে সব সময় পিচের চরিত্র ও তার আচরণের ব্যাপারটা ভালো করে বুঝে নিতে হয়। সেই মতো বোলিং করতে হয়। ইডেনের বাইশ গজ শামির হাতের তালুর মতো চেনা। কারণ এখানেই প্রচুর ম্যাচ খেলেছেন বিরাটের দলের এই ডানহাতি পেসার।

আজ থেকে ছয় বছর আগে নভেম্বরেই ইডেনে টেস্ট অভিষেক হয়েছিল শামির। ৬ নভেম্বর, ২০১৩ ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে ৯ উইকেটে নিয়ে স্বপ্নের টেস্ট অভিষেক হয়েছিল এই পেসারের। মাঝে কিছুটা সময় খারাপ গেলেও গত বছর অস্ট্রেলিয়া সফর থেকে আবার সমহিমায় দেখা গিয়েছে শামিকে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা