kalerkantho

শনিবার । ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৯ রবিউস সানি ১৪৪১     

শামি ভাইয়ের কাছে গিয়েছিলাম পরামর্শ নিতে : আবু জায়েদ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৮ নভেম্বর, ২০১৯ ১৫:৩৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শামি ভাইয়ের কাছে গিয়েছিলাম পরামর্শ নিতে : আবু জায়েদ

মুশফিকের ব্যাটিং আর আবু জায়েদের ৪ উইকেট ছাড়া ইন্দোর টেস্টে বাংলাদেশে আর কোনো প্রাপ্তি নেই। আসলে ইনিংস আর ১৩০ রানে হারের পর প্রাপ্তির কিছু থাকে না। ম্যাচের দ্বিতীয় দিনের সকালে চেতেশ্বর পুজারা ও বিরাট কোহলিকে ফিরিয়ে এক সময় ভারতকে চাপে ফেলে দিয়েছিলেন সিলেটের এই তরুণ পেসার। প্রথম দিনের শেষে রোহিত শর্মার উইকেটটিও তিনি নিয়েছিলেন। রাহির বোলিং আইডল ভারতের তারকা পেসার মোহাম্মদ শামি।

বাংলাদেশ দলের পেস আক্রমণের ভবিষ্যত হিসেবে ভাবা হচ্ছে রাহিকে। কীভাবে আরও উন্নতি করা যায়, সে বিষয়ে জানতে গিয়েছিলেন মোহাম্মদ শামির কাছে। বাংলাদেশের অনুশীলনের শুরুতে আবু জায়েদ বলছিলেন, 'শামি ভাইয়ের মতো বল করতে পারলে খুব ভাল লাগবে। ম্যাচ শেষে ওর থেকে পরামর্শও চাইতে গিয়েছিলাম। শামি ভাইয়ের উচ্চতা আমারই মতো। এবার সিম পজিশনও যদি উন্নত করতে পারি, তাহলে একদিন হয়তো ওর মতোই বোলার হয়ে উঠতে পারব।'

রাহি আরও বলেন, 'প্রথম দিন শামি ভাই যখন বল করছিল, তা মন দিয়ে লক্ষ্য করেছি। উনার কাছ থেকে অনেক কিছু শেখার আছে। কোহলি, পুজারার উইকেট পেয়েছেন। কেমন ছিল সেই অনুভূতি? রাহির উত্তর, 'কোহলির উইকেট পাওয়া আমার কাছে স্বপ্নের মতো। কোহলিকে আউট করতে পেরে খুব ভালো লাগছে। সত্যি স্বপ্নপূরণ!'

গোলাপি বলে এখনও খেলার অভিজ্ঞতা হয়নি রাহির। ইংল্যান্ড থেকে তার মেজভাই একটি গোলাপি বল উপহার হিসেবে নিয়ে এসেছিলেন। কিন্তু সেটা দিয়ে কখনও বল করে দেখা হয়নি। রাহি মনে করেন, 'গোলাপি বল বেশি সুইং করতে পারে। তাছাড়া ভারত ও বাংলাদেশ দুই দলই প্রথমবার গোলাপি বল মোকাবেলা করবে। তাই কোনো দলকেই এগিয়ে রাখা যাবে না। যারা ভালো খেলবে তারাই ইডেন টেস্ট জিতবে।'

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা