kalerkantho

শনিবার । ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৬ রবিউস সানি               

বিধ্বংসী বোলিং করা কে এই ১৮ বছরের রুয়েল?

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ নভেম্বর, ২০১৯ ১৬:০৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিধ্বংসী বোলিং করা কে এই ১৮ বছরের রুয়েল?

জাতীয় ক্রিকেট লিগের (এনসিএল) চলমান আসরে ষষ্ঠ রাউন্ডে দ্বিতীয় স্তরের ম্যাচের প্রথম দিনই বল হাতে বিধ্বংসী রূপ দেখালেন সিলেট বিভাগের হয়ে খেলতে নামা ১৮ বছর বয়সী বাঁ-হাতি পেসার রুয়েল মিয়া। বল হাতে ৮ উইকেট নিয়ে প্রথম দিনই চট্টগ্রাম বিভাগকে ১০৬ রানে অল-আউট করে দিয়েছেন তিনি! জবাবে দিন শেষে ৫ উইকেটে ১৮৬ রান করেছে সিলেট। ফলে ৫ উইকেট হাতে নিয়ে ৮০ রানে এগিয়ে সিলেট। ঘরোয়া ক্রিকেটে পেসারদের মধ্যে সেরা বোলিং ফিগার এখন রুয়েলের।

বগুড়ার শহীদ চান্দু স্টেডিয়ামে টস জিতে বোলিং করতে নামে সিলেট। রুয়েলের বোলিং তোপে দিশেহারা হয়ে পড়ে চট্টগ্রামের ব্যাটসম্যানরা। ৩৫.১ ওভারেই তাদের ইনিংস গুটিয়ে যায়। ১৪.১ ওভার বল করে ২৬ রানে ৮ উইকেট নেন রুয়েল। প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে মাত্র তৃতীয় ম্যাচ খেলতে নেমেই প্রথমবারের মত পাঁচ বা ততোধিক উইকেট শিকার করলেন ১৮ বছর বয়সী এই তরুণ। চট্টগ্রামের পক্ষে সর্বোচ্চ ২১ রান করে করেন তাসামুল হক ও অধিনায়ক-উইকেটরক্ষক ইরফান শুক্কুর। চা-বিরতির আগে চট্টগ্রামের ইনিংস শেষ করে দিন শেষে ৪৮ ওভার ব্যাট করে লিড নিয়েছে সিলেট।

বাংলাদেশের প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে এক ইনিংসে কোনো বোলারের সেরা বোলিংয়ের রেকর্ড সানজামুল ইসলামের। দুই বছর আগে বিসিএলে বিসিবি উত্তরাঞ্চলের হয়ে ওয়ালটনের মধ্যাঞ্চলের বিপক্ষে ৮০ রানে ৯ উইকেট নিয়েছিলেন এই বাঁ হাতি স্পিনার। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে এক ইনিংসে ৯ উইকেট নেওয়ার কীর্তি রয়েছে সাকলায়েন সজীব, আবদুর রাজ্জাক ও মোশাররফ হোসেনের। এবার প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে বাংলাদেশি পেসারদের মধ্যে সেরা বোলিংয়ের কীর্তি গড়লেন রুয়েল মিয়া।

রুয়েলের বাবা একজন গাড়ি চালক এবং মা একজন গৃহিণী। বয়সভিত্তিক ক্রিকেট অনূর্ধ্ব ১৬ এর ট্রায়ালে অংশ নিয়েই দলে সুযোগ পেয়ে যান শ্রীমঙ্গলের এই তরুণ। তারপর পর্যায়ক্রমে অনূর্ধ্ব ১৭, ১৮ ও ১৯ এ খেলেছেন। রুয়েলের এই ক্যারিয়ারের পেছনে বড় অবদান তার দুজন কোচ, তাপস দত্ত ও রাসেল আহমেদের। রুয়েলকে তারাই আগলে রেখে ক্রিকেটার হতে সহায়তা করেছেন। 
এবারের এনসিএলে আরও দুইটি ম্যাচ খেলেছেন রুয়েল। তবে সেগুলোই খুব একটা উজ্জ্বল ছিল না তার পারফর্ম। তৃতীয় ম্যাচে এসেই বাজিমাত করলেন তিনি। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা