kalerkantho

শুক্রবার । ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৫ রবিউস সানি          

১০ বছর পর টেস্ট ক্রিকেট ফিরছে পাকিস্তানে!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ নভেম্বর, ২০১৯ ১৩:৩২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



১০ বছর পর টেস্ট ক্রিকেট ফিরছে পাকিস্তানে!

দীর্ঘ ১০ বছর পর পাকিস্তানে ফিরতে যাচ্ছে টেস্ট ক্রিকেট। দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে শ্রীলঙ্কা আগামী মাসে পাকিস্তান সফরে রাজি হয়েছে বলে আজ ঘোষণা করেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। শ্রীলঙ্কা দলের সফরের মাধ্যমে অবসান ঘটতে যাচ্ছে পাকিস্তানে টেস্ট নির্বাসন। ২০০৯ সালে পাকিস্তান সফরে এই শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট দলই লাহোরে সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয়েছিল। এরপরই নির্বাসিত হয় পাকিস্তানের মাটিতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। তাই এই শ্রীলঙ্কার কাছ থেকেই এমন আস্থার ভোট পাওয়াটা পাকিস্তানের জন্য বিশাল অর্জন।

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে পাকিস্তানের নিরাপত্তায় নাটকীয় উন্নতি ঘটেছে। ফলে সংক্ষিপ্ত পরিসরে হলেও সেখানে ফিরে আসে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। ২০১৫ সালে প্রথম বিদেশি দল হিসেবে পাকিস্তানে ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট খেলতে যায় জিম্বাবুয়ে। এরই ধারাবাহিকতায় ২০১৭ সালে পাকিস্তানে অনুষ্ঠিত হয় বিশ্ব একাদশের সঙ্গে টি-টোয়েন্টি সিরিজ। একই বছরের শেষভাগে সেখানে অনুষ্ঠিত হয় একটি টি-টোয়েন্টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ। প্রতিপক্ষ ছিল শ্রীলঙ্কা। ২০১৮ সালে পাকিস্তান সফরে আসে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। গত মাসেই পাকিস্তানে তিন ম্যাচের ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টি সিরিজে খেলেছে শ্রীলঙ্কা।

সিরিজের প্রথম টেস্ট অনুষ্ঠিত হবে ১১ থেকে ১৫ ডিসেম্বর রাওয়ালপিন্ডিতে। ১৯ থেকে ২৩ ডিসেম্বর করাচিতে অনুষ্ঠিত হবে দ্বিতীয় টেস্ট। এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) জানায়, 'গত মাসের সফর সফল হওয়ার পর শ্রীলঙ্কার কাছ থেকে সবুজ সংক্ষেত পেয়েই আজ দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজের সুচি চুড়ান্ত করা হয়েছে।'

পিসিবি জানায়, 'শ্রীলঙ্কার সঙ্গে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজে শুধুমাত্র নিরাপত্তা ব্যবস্থাই প্রাধান্য পায়নি। বরং স্টেডিয়ামে দর্শকদের বিপুল উপস্থিতিও প্রমান করেছে দেশটি এখন এই খেলার জন্য যথেষ্ঠ নিরাপদ। এটি পাকিস্তানের জন্য একটি দারুন খবর। এর মাধ্যমে পাকিস্তান বিশ্বের অন্য দেশগুলোর জন্যও নিরাপদ ভাবমুর্তির সৃষ্টি করবে।'

পিসিবির বিজ্ঞপ্তিতে শ্রীলঙ্কার প্রধান নির্বাহী এ্যাশলে ডি সিলভার বক্তব্যও উল্লেখ করা হয়, যেখানে তিনি বলেছেন, 'এই সুচি নিশ্চিত হওয়ায় তারা সন্তুষ্ট। আমরা নিশ্চিত, সেখানকার কন্ডিশন টেস্ট ক্রিকেটের জন্য মানানসই হবে।' টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অন্তর্ভুক্ত হবে পাকিস্তান-শ্রীলঙ্কার মধ্যকার সিরিজটি। বিশ্বের শীর্ষ নয়টি টেস্ট দল এই টুর্নামেন্টে অংশ নিচ্ছে। টুর্নামেন্টের ফাইনাল হবে ২০২১ সালের জুনে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা