kalerkantho

শুক্রবার । ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৮ রবিউস সানি ১৪৪১     

ইডেনে টেস্ট খেলার স্বপ্ন ছিল, পূরণ হয়নি : হাবিবুল

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৪ নভেম্বর, ২০১৯ ১১:২৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ইডেনে টেস্ট খেলার স্বপ্ন ছিল, পূরণ হয়নি : হাবিবুল

এই প্রথমবার ভারতের মাটিতে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে গেছে বাংলাদেশ। আজ বৃহস্পতিবার থেকে ইন্দোরে শুরু হয়েছে সিরিজের প্রথম টেস্ট। আর দ্বিতীয় টেস্ট শুরু হবে ২২ নভেম্বর থেকে। কলকাতার ইডেন গার্ডেনে অনুষ্ঠিতব্য সেই ম্যাচটি একাধিক কারণে ইতিহাস হয়ে থাকবে। ওই ম্যাচটি হবে বাংলাদেশ এবং ভারতের জন্য প্রথম দিবা-রাত্রির টেস্ট ম্যাচ। টেস্ট সিরিজ নিয়ে কলকাতার একটি শীর্ষ দৈনিকের সঙ্গে কথা বলেছেন বাংলাদেশের সাবেক খ্যাতিমান অধিনায়ক এবং বর্তমান নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমন। বলেছেন ইডেনে খেলতে না পারার আক্ষেপের কথা।

কলকাতা টেস্টে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং পশ্চিমবঙ্গে মূখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। এই ম্যাচে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে ২০০০ সালে বাংলাদেশের হয়ে অভিষেক টেস্ট খেলা ক্রিকেটারদের। যে কারণে হাবিবুলকে সেখানেই থাকতেই হবে। ইডেনের ওই ম্যাচ নিয়ে তিনি বলেন, '২০০০ সালের সেই দলের সদস্যদের সঙ্গে পুনর্মিলনের সুযোগ করে দিয়েছে সৌরভ গাঙ্গুলী। কলকাতায় টেস্ট খেলার স্বপ্ন ছিল। আশা পূরণ হয়নি। এবার সমর্থক হিসেবেই না হয় অভিষেক হবে।'

বাংলাদেশ ক্রিকেটের মনোভাব পাল্টে দেওয়ার অন্যতম কারিগর বলা হয় হাবিবুলকে। তিনি। তার নেতৃত্বেই ২০০৪ সালে চট্টগ্রামে জিম্বাবুয়েকে হারিয়ে প্রথম টেস্ট জয়ের স্বাদ পেয়েছিল বাংলাদেশ। সাবেক কোচ ডেভ হোয়াটমোরের সঙ্গে তার জুটি দেশের ক্রিকেট সংস্কৃতিই পাল্টে দিয়েছিল। এখন তিনি যখন নির্বাচক, তখন সাকিব-তামিমকে ছাড়াই ভারতের মাটিতে কঠিন সিরিজ খেলতে গিয়েছে বাংলাদেশ। বিপরীতে পূর্ণ শক্তি নিয়ে মাঠে নেমেছে বিরাট কোহলির ভারত। ভারতীয় পেসারদের পাশাপাশি ব্যাট হাতে বাংলাদেশের জন্য ভয়ংকর হয়ে উঠতে পারেন বিরাট কোহলি। এই সত্য মেনে নিয়েই লড়াইয়ের আশা করছেন হাবিবুল।

তিনি আরও বলেন, 'সাকিব ও তামিম দলের দুই স্তম্ভ। ওদের বাদ দিয়ে মোহাম্মদ শামি, ইশান্ত শর্মা, উমেশ যাদবদের সামলানো এই বাংলাদেশ ব্যাটিং লাইন-আপের কাছে কঠিন কাজ। তবে টি-টোয়েন্টিতে সাকিবদের ছাড়া খারাপ খেলেনি বাংলাদেশ। সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচে অনেক কাছে গিয়ে হেরেছে। টেস্টে বিরাট কোহলি ফিরেছে। সে ক্রিকেট বিশ্বের যে কোনো দেশের কাছেই ত্রাস। ভারতের এই ব্যাটিং লাইন-আপকে সমস্যায় ফেলতে হলে বাংলাদেশককে অসামান্য বোলিং করতে হবে। আশা করি, মুস্তাফিজুররা লড়াই করবে।'

-সূত্র : আনন্দবাজার

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা