kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৯ নভেম্বর ২০১৯। ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২১ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে সিলেটকে জয় উপহার দিলেন ইমতিয়াজ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ অক্টোবর, ২০১৯ ১৯:০৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে সিলেটকে জয় উপহার দিলেন ইমতিয়াজ

ঢাকা মেট্রোর মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের সেঞ্চুরি ম্লান করে ২১তম জাতীয় ক্রিকেট লিগের (এনসিএল) দ্বিতীয় রাউন্ডের সিলেট বিভাগকে প্রথম জয়ের স্বাদ দিলেন ওপেনার ইমতিয়াজ হোসেন। দ্বিতীয় স্তরের ম্যাচে ঢাকা মেট্রোর দ্বিতীয় ইনিংসে ১১১ রান করেন মাহমুদউল্লাহ। তার ইনিংসের সুবাদে ২৭৩ রানে অল-আউট হয় ঢাকা মেট্রো। ফলে ম্যাচ জয়ের জন্য ২০১ রানের টার্গেট পায় সিলেট। সেই লক্ষ্যে খেলতে নেমে ৮ উইকেটে ম্যাচ জিতে সিলেট। ১৭৮ বলে অপরাজিত ১১০ রান করেন ইমতিয়াজ। এছাড়া জাকির হাসান করেন ৭২ রান। প্রথম ইনিংসে ঢাকা মেট্রো ২৪৬ ও সিলেট ৩১৯ রান করেছিল সিলেট।

বগুড়ার শহীদ চান্দু স্টেডিয়ামে তৃতীয় দিন শেষে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ৬ উইকেটে ২২৫ রান করেছিল ঢাকা মেট্রো। ফলে ৪ উইকেট হাতে নিয়ে ১৫২ রানে এগিয়ে ছিল ঢাকা মেট্রো। মাহমুদউল্লাহ ৯৫ ও শহিদুল ইসলাম ২৯ রানে অপরাজিত ছিলেন। চতুর্থ দিন সকালে আজ অষ্টম ওভারে বাউন্ডারি মেরে সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন মাহমুদউল্লাহ। এরপর ব্যক্তিগত ৪২ রানে আউট হন শহিদুল। তবে সেঞ্চুরির পর নিজের ইনিংসটি বড় করতে পারেননি মাহমুদউল্লাহ। ১১১ রানেই থেমে যান এই ডান-হাতি ব্যাটসম্যান। তার ২৪৩ বলের ইনিংসে ৬টি চার ও ১টি ছক্কা ছিল।

মাহমুদউল্লাহর বিদায়ের ২৮ বল পরই অলআউট হয় ঢাকা মেট্রো। ২৭৩ রানে শেষ হয় ঢাকা মেট্রোর ইনিংস। সিলেটের আবু জায়েদ ৪টি উইকেট নেন। ঢাকা মেট্রোর ইনিংস শেষে ম্যাচ জয়ের জন্য ২০১ রানের টার্গেট পায় সিলেট। জবাব দিতে নেমে ১০ম ওভারেই প্রথম উইকেট হারায় সিলেট বিভাগ। ওপেনার তৌফিক খান ১০ রান করে স্পিনার আরাফাত সানির বলে আউট হন।

এরপর ১৬২ রানের জুটি গড়ে সিলেটের জয়ের পথ সহজ করে ফেলেন আরেক ওপেনার ইমতিয়াজ হোসেন ও জাকির হাসান। এরমধ্যে ৭১ রান অবদান রেখে ফিরেন জাকির। তবে সেঞ্চুরি তুলে দলের জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছাড়েন ইমতিয়াজ। ১১টি চার ও ১টি ছক্কায় ১৭৮ বলে অপরাজিত ১১০ রান করেন ইমতিয়াজ। তার সঙ্গী আফিফ হোসেন অপরাজিত ৮ রান করেন। ম্যাচ সেরা হয়েছেন সিলেটের জাকির হাসান।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা