kalerkantho

রবিবার। ১৭ নভেম্বর ২০১৯। ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

গণ্ডারের সঙ্গে রোহিতের ছবিটি কেন ভাইরাল?

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৮ অক্টোবর, ২০১৯ ১৫:৫৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গণ্ডারের সঙ্গে রোহিতের ছবিটি কেন ভাইরাল?

এই বিশ্ব ক্রমেই প্রাণী সমাজের জন্য বসবাস অযোগ্য হয়ে যাচ্ছে। ধ্বংষ হচ্ছে প্রকৃতি। এমতাবস্থায় ভারতের ভয়ংকর ওপেনার রোহিত শর্মার সঙ্গে গণ্ডার সুদানের একটি পুরনো ছবি পোস্ট করল কেনিয়ার ওল পেজেটা কনজার্ভেন্সি। আসলে প্রাণী সংরক্ষণে রোহিত শর্মার সাহায্যকে সম্মান জানাতেই তাদের এই পোস্ট। এরপর নতুন করে সোশ্যাল সাইটে ভাইরাল হয়ে গেছে রোহিত আর গণ্ডারের ছবিটি। সুদান নামের এই গণ্ডারটি ২০১৮ সালে মারা যায়।

সুদানই ছিল পৃথিবীর শেষ পুরুষ নর্দান হোয়াইট রাইনো। সুদানের মৃত্যুর পরও এই প্রজাতির আরও দুটি গণ্ডার বেঁচে রয়েছে কিন্তু তারা দুটিই স্ত্রী গণ্ডার। ২০১৫ সালের মার্চে কেনিয়ার লাইকিপিয়া এলাকায় ওল পেজেটা সংরক্ষণকেন্দ্রে গিয়েছিলেন রোহিত শর্মা ও তার স্ত্রী ঋতিকা। সেখানে সুদানের সঙ্গে ছবিও তোলেন রোহিত। এরপর নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে পোস্ট করেন ছবিটি।

চার বছরের পুরনো সেই ছবি নতুন করে পোস্ট করে ওল পেজেটা কনজার্ভেন্সি জানিয়েছে, রোহিত শর্মা তাদের গণ্ডার প্রকল্পে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিয়েছেন। ২০১৫ সালের রোহিত ও ঋতিকার ওল পেজেটা কনজার্ভেন্সি ঘুরতে যান। গণ্ডার প্রকল্পে রোহিত শর্মার গুরুত্বপূর্ণ সাহায্যের জন্য তারা যে সম্মানিত তা জানিয়ে ধন্যবাদ দিয়েছে ওল পেজেটা কনজার্ভেন্সি।

সুদানে ১৯৭৫ সালে ৬টি সাদা গণ্ডার ধরা পড়ে। তাদের মধ্যে সুদান ও সাউট ছিল পুরুষ বাকি চারটি নোলা, নুরি, নাদি, নেসারিস্ত্রী গণ্ডার। সুদানের বয়স তখন ২ বছর। তারপর থেকে তাকে সংরক্ষিত এলাকায় রাখা হয়। ২০১৮ সালে ৪৫ বছর বয়সে সুদানের মৃত্যুর সঙ্গে সঙ্গে পৃথিবী থেকে এই প্রজাতির পুরুষ গণ্ডার লুপ্ত হয়ে যায়। অন্য প্রজাতির জীবিত গণ্ডারদের বাঁচাতে চেষ্টা চলছে। সেই প্রচেষ্টাতেই অংশ নিয়েছেন রোহিত শর্মাও।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা