kalerkantho

রবিবার। ১৭ নভেম্বর ২০১৯। ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

সৌরভের ছোঁয়ায় বদল আসবে বাংলাদেশ-ভারত ক্রিকেটীয় সম্পর্কে?

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৪ অক্টোবর, ২০১৯ ১৭:১৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সৌরভের ছোঁয়ায় বদল আসবে বাংলাদেশ-ভারত ক্রিকেটীয় সম্পর্কে?

টেস্ট মর্যাদা পাওয়ার পর বাংলাদেশ অভিষেক ম্যাচটি খেলেছিল ভারতের বিপক্ষে। প্রয়াত জগমোহন ডালমিয়াসহ প্রতিবেশী দেশটির বেশ কিছু ক্রিকেট ব্যক্তিত্ব বাংলাদেশের ক্রিকেটকে উৎসাহ দিয়ে গেছেন এবং যাচ্ছেন। তবে ভারতের মাটিতে বাংলাদেশের সঙ্গে সিরিজ নিয়ে বিসিসিআইয়ের বিমাতাসুলভ অবস্থান দেখা গেছে দীর্ঘদিন। এবার বাঙালি বাবু সৌরভ গাঙ্গুলী হচ্ছেন বিসিসিআইয়ের প্রেসিডেন্ট। এটা কি বাংলাদেশের জন্য তাৎপর্যপূর্ণ হবে?

গতকাল রবিবার মুম্বাইয়ে বিসিসিআইয়ের অনানুষ্ঠানিক এক সভায় ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের কর্তাব্যক্তিরা একমত হয়েছেন যে, সাবেক সফলতম অধিনায়কের হাতেই দায়িত্ব তুলে দেওয়া হবে। এখন শুধু আনুষ্ঠানিকতার বাকী। খেলোয়াড় এবং অধিনায়ক হিসেবে তুমুল জনপ্রিয় ছিলেন সৌরভ গাঙ্গুলী। বাংলাদেশেও তার লাখো ভক্ত আছে। তাদের আশা, এবার হয়তো ভারতের মাটিতে উল্লেখযোগ্য হারে আমন্ত্রণ জানানো হবে বাংলাদেশকে।

গত দুই বছর আগেও বিসিসিআইয়ের কর্মকর্তারা বলতেন, বাংলাদেশের বিপক্ষে হোম সিরিজে দর্শক হয় না। এটা তাদের জন্য আর্থিক ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়ায়। এই মনোভাবের কারণে টেস্ট মর্যাদা পাওয়ার ১৭ বছরে ভারতের মাটিতে সাদা পোশাকে খেলতে পারেনি টাইগাররা। শেষ পর্যন্ত ২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারিতে প্রথমবারের মতো ভারতের মাটিতে এটিমাত্র টেস্ট খেলেছে বাংলাদেশ। এরপর আবার বিরতি। এবার চলতি বছরের নভেম্বরে টেস্ট আর টি-টোয়েন্টি খেলতে ভারতে যাবেন সাকিবরা।

২০০০ সালের ১০ নভেম্বর অভিষেক টেস্ট থেকে শুরু করে এখন পর্যন্ত ভারতের বিপক্ষে মাত্র ৯টি টেস্ট খেলেছে বাংলাদেশ। যার দুটি ড্র হয়েছে, বাকী ৭টিতে জিতেছে ভারত। নবাগত আফগানিস্তান আর আয়ারল্যান্ড ছাড়া টেস্ট খেলুড়ে দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশ অনেক কম সুযোগ পায় সাদা পোশাকে খেলার। পাশাপাশি ঘরোয়া ক্রিকেট নামে মাত্র হওয়ায় টেস্টে বাংলাদেশের অবস্থানের উন্নতি হচ্ছে না। এবার সৌরভ গাঙ্গুলী বিসিসিআইয়ের দায়িত্ব নেওয়ার পর দেশের ক্রিকেটপ্রেমীদের আশা থাকবে, প্রতিবেশী দুই দেশের ক্রিকেটীয় সম্পর্ক আরও জোরদার হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা