kalerkantho

সোমবার । ১৮ নভেম্বর ২০১৯। ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

সিপিএলে দ্বিতীয়বার শিরোপা জিতল সাকিবের বার্বাডোজ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ অক্টোবর, ২০১৯ ১১:২২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সিপিএলে দ্বিতীয়বার শিরোপা জিতল সাকিবের বার্বাডোজ

২০১৪ সালের পর ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (সিপিএল) এবারের আসরে দ্বিতীয়বার শিরোপা জিতল সাকিব আল হাসানের দল বার্বাডোজ ট্রাইডেন্টস। ফাইনালে গায়ানা অ্যামাজন ওয়ারিয়র্সের বিপক্ষে ২৭ রানে জয় পায় দলটি।

বাংলাদেশ সময় গতকাল শনিবার দিবাগত রাতে শিরোপার লড়াইয়ে মাঠে নামে সাকিবের দল বার্বাডোজ ট্রাইডেন্টস আর গায়ানা আমাজন। টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ৪৩ রানের উদ্বোধনী জুটিতে বার্বাডোজকে ভালো সূচনা এনে দিয়েছিলেন জনসন চার্লস (৩৯) ও অ্যালেক্স হেলস (২৮)। এ জুটি ভাঙার পর নিয়মিত বিরতিতে দুটি উইকেট পড়লে বিপদে পড়ে দলটি। এ সময় ক্রিজে আসেন সাকিব আল হাসান। তবে দলের সাফল্যের দিনে ব্যাট হাতে অনুজ্জ্বল ছিলেন এই বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। ১৫ বলে ১৫ রান করার পরই দ্বিতীয় রানের চেষ্টায় রান আউট হন তিনি। এমন পরিস্থিতিতে ঝড় তোলেন জনাথন কার্টার। ১০৮ রানে ৬ উইকেট হারানোর পর সপ্তম উইকেটে কার্টার ও অ্যাশলে নার্স ৩১ বলে অবিচ্ছিন্ন ৬৩ রানের জুটি গড়েন। ২৭ বলে ৪টি করে চার ও ছক্কায় ৫০ রানে অপরাজিত ছিলেন কার্টার। ১৫ বলে একটি করে চার ও ছক্কায় ১৯ রানে অপরাজিত থাকেন নার্স। তাদের কল্যানে শেষ পর্যন্ত বার্বাডোজের সংগ্রহ দাড়ায় ১৭১ রান।

১৭২ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে শুরু থেকেই নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে গায়ানা অ্যামাজন ওয়ারিয়র্স। এর ফলে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৪৪ রানে থেমে যায় গায়ানা। 

গায়ানার পক্ষে সর্বোচ্চ ৪৩ রান করেন আগের ম্যাচে ঝড়ো সেঞ্চুরি করা ব্রান্ডন কিং। এছাড়া দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৫ রান আসে কিমো পলের ব্যাট থেকে। 

এদিকে এদিন বল হাতেও অনুজ্জ্বল ছিলেন সাকিব। ২ ওভার বল করে ১৮ রান দিয়েছেন। থাকেন উইকেট শুন্য। অথচ তার দলেরই রেইমন, গার্নি ও নার্স ছিলেন অনবদ্য। রেইফার ৪ ওভারে ২৪ রান দিয়ে নিয়েছেন ৪ উইকেট। বাকি দুজন ২টি করে উইকেট নিয়েছেন। 

ম্যাচ সেরা হয়েছেন কার্টার। নয় ম্যাচে ২২ উইকেট নিয়ে টুর্নামেন্ট সেরার পুরস্কার পেয়েছেন বার্বাডোজের লেগ স্পিনার হেইডেন ওয়ালশ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা