kalerkantho

বুধবার । ২৩ অক্টোবর ২০১৯। ৭ কাতির্ক ১৪২৬। ২৩ সফর ১৪৪১                 

বৃষ্টি মাথায় নিয়ে শুরু হলো এনসিএল

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১০ অক্টোবর, ২০১৯ ১৮:৩২ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বৃষ্টি মাথায় নিয়ে শুরু হলো এনসিএল

ছবি : বিসিবি

পর্দা উঠল ২১তম জাতীয় ক্রিকেট লিগের (এনসিএল)। প্রথম দিনই ঝামেলা পাকিয়েছে বৃষ্টি। প্রথম দিনে চারটির মধ্যে দুটি ম্যাচে টস করাই সম্ভব হয়নি। বাকি দুটির একটিতে প্রথম দিনের খেলা হয়েছে ৫১ ওভার এবং অন্য একটিতে ৫১.৫ ওভার। বৃষ্টির জন্য মাঠেই নামতে পারেননি খুলনা বিভাগ-রংপুর বিভাগ এবং বরিশাল বিভাগ-সিলেট বিভাগ। ফলে এই দুটি ম্যাচে টস ছাড়াই প্রথম দিনের খেলা পরিত্যক্ত হয়।

মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে দ্বিতীয় স্তরের ম্যাচে মুখোমুখি হয় ঢাকা মেট্রো ও চট্টগ্রাম বিভাগ। টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নামে চট্টগ্রাম। দলকে ৮০ রানের সূচনা এনে দেন দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও সাদিকুর রহমান। ব্যাট হাতে শুরু থেকেই অত্যন্ত সর্তক ছিলেন তামিম। তবে রান তোলার কাজটা সেড়েছেন সাদিকুর। ওয়ানডে মেজাজে দ্রুতই হাফ-সেঞ্চুরি তুলে নেন তিনি। হাফ-সেঞ্চুরির পরই সাদিকুরকে বিদায় দিয়ে ঢাকা মেট্রো পক্ষে প্রথম ব্রেক-থ্রু এনে দেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। ৬৯ বলে ৫ চার ও ১ ছক্কায় ৫১ রান করেন সাদিকুর।

গত জুলাইয়ে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের পর আজই প্রথম ২২ গজে ব্যাট হাতে নামেন তামিম। দীর্ঘক্ষণ উইকেটে থেকে সেট হতে পারলেও বড় ইনিংস খেলতে পারেননি দেশসেরা ওপেনার। ১০৫ বলে  ৩টি চারে তার সংগ্রহ মাত্র ৩০ রান। তামিমকেও শিকার করেন মাহমুদুল্লাহ। বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান ও অধিনায়ক মুমিনুল হককে ১১ রানের বেশি করতে দেননি এই অভিজ্ঞ ব্যাটিং অল-রাউন্ডার। দলীয় ১১৩ রানে তৃতীয় উইকেট হারায় চট্টগ্রাম।

এরপর দলের হাল ধরেন পিনাক ঘোষ ও তাসামুল হক। বৃষ্টিতে খেলা বন্ধ হয়ে যাবার আগ পর্যন্ত দুজনে অবিচ্ছিন্ন থাকেন। পিনাক ৩০ ও তাসামুল ১৭ রানে অপরাজিত থেকে দিনের খেলা শেষ করেন। প্রথম দিন শেষে ৫১ ওভারে ৩ উইকেটে ১৪৭ রানের সংগ্রহ পায় চট্টগ্রাম। ঢাকা মেট্রোর মাহমুদুল্লাহ ৪০ রানে ৩ উইকেট নেন।

ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে প্রথম স্তরের ম্যাচে মুখোমুখি হয় ঢাকা বিভাগ ও রাজশাহী বিভাগ। এই ম্যাচটিও বৃষ্টির কারনে ৫১.৫ ওভারের বেশি খেলা হয়নি। এ ম্যাচে টস জিতে প্রথমে বোলিং বেছে নেয় ঢাকা বিভাগ। ব্যাট হাতে নেমে দলীয় ২৯ রানে প্রথম উইকেট হারায় রাজশাহী। ওপেনার আব্দুল মজিদ ১০ রান করে বাঁ-হাতি স্পিনার তাইজুল ইসলামের বলে আউট হন।

এরপর ৮০ রানের জুটি গড়েন রনি তালুকদার ও জয়রাজ শেখ। জয়রাজ ৩৫ রানে থামলেও হাফ-সেঞ্চুরি তুলে ৬৩ রানে আউট হন রনি। তার আউটের পর শফিউল-তাইজুলের বোলিং তোপে ২২ রানের ব্যবধানে ৪ উইকেট হারায় ঢাকা বিভাগ। ফলে বৃষ্টির কারনে প্রথম দিনের খেলা বন্ধ হবার আগে ৫১.৫ ওভারে ৭ উইকেটে ১৪৩ রান করে ঢাকা বিভাগ। মাজিদ-রনি-জয়রাজের পর তাইবুর রহমানই দুই অংকের কোটা স্পর্শ করতে পারেন। তাইবুর ১২ নিয়ে অপরাজিত আছেন। তাইজুল ৪টি ও শফিউল ৩টি করে উইকেট নেন। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা