kalerkantho

মাথা উঁচু করে বিদায় নিলেন নবি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৬:১০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মাথা উঁচু করে বিদায় নিলেন নবি

ছবি : ক্রিকেট আফগানিস্তান

বাংলাদেশের বিপক্ষে হয়তো নিজের টেস্ট পারফর্মেন্স মনোমুগ্ধকর ছিলনা, কিন্তু নিজ দল আফগানিস্তানকে জয় উপহার দিয়ে টেস্ট ক্রিকেট থেকে বিদায় নিলেন মোহাম্মদ নবি। গতকাল সোমবার চট্টগ্রামে শেষ হওয়া একমাত্র টেস্টে স্বাগতিক বাংলাদেশকে ২২৪ রানের বিশাল ব্যবধানে পরাজিত করেছে টেস্ট পরিবারের নতুন সদস্য আফগানিস্তান।ম্যাচে র দুই ইনিংসে ব্যাট হাতে যথাক্রমে ০ এবং ৮ রান করেছিলেন আফগান অল রাউন্ডার। তবে বল হাতে প্রথম ইনিংসে ৫৬ রান দিয়ে ৩টি এবং দ্বিতীয় ইনিংসে ৩৯ রান দিয়ে ১ উইকেট শিকার করেন তিনি।

আফগানিস্তানের ক্রিকেটকে আজকের উচ্চতায় তুলে আনতে নবির অবদান অনস্বীকার্য। তিনি সেই যুগের ক্রিকেটার, যখন আফগানিস্তানকে কেউ চিনতই না। টেস্ট মর্যাদা পাওয়া আফগানিস্তানের হয়ে এ পর্যন্ত তিনটি টেস্টের সব কটিতেই অংশগ্রহণ করেছেন মোহাম্মদ নবি। তবে লংগার ভার্সনের এই ক্রিকেটে বলার মত কিছুই করতে পারেননি তিনি। তিনটি টেস্ট থেকে তার সংগ্রহ মাত্র ৩৩ রান ও ৮ উইকেট। তবে নতুন সদস্যপদ পেয়েই আফগানিস্তান তাদের প্রথম তিন টেস্টের দুটিতে জয়লাভ করায় দারুন খুশি নবি। যা টেস্ট ক্রিকেটার হিসেবে তাকে গর্বিত করেছে। 

৩৪ বছর বয়সী আফগানিস্তান দলের সাবেক এই অধিনায়ক তরুণদের সুযোগ করে দেয়ার জন্যই টেস্ট ক্রিকেট ছেড়ে দিচ্ছেন উল্লেখ করে বলেন, 'আমি আফগানিস্তানের হয়ে টেস্ট খেলার স্বপ্ন দেখতাম। কম সময়ের মধ্যেই এ জন্য আমরা প্রচুর পরিশ্রম করেছি। ১৩ বা ১৪ বছর নয়, মাত্র ৭ থেকে ৮ বছরের মধ্যেই আমরা এটি অর্জন করেছি। আমাদের প্রচুর সংগ্রাম করতে হয়েছে। সম্মিলিত দলীয় কম্বিনেশন নিয়ে মানসিকভাবে প্রস্তুত হতে হয়েছে।'

তিনি আরও বলেন, 'আমরা কখনো পিছপা হইনি। তিন বার ইন্টার কন্টিনেন্টাল কাপে খেলতে হয়েছে, যার দুটিতেই আমরা শিরোপা জয় করেছি। আর একবার রানার আপ হয়েছি। এটি ছিল সত্যিকার অর্থেই ভালো ফলাফল। যে কারণে আইসিসি আমাদের টেস্ট স্ট্যাটাস দিয়েছে। আফগানিস্তানের এই প্রজন্মের অংশ হতে পেরে আমি সত্যি গর্বিত। আমার পরিকল্পনা হচ্ছে আগামীর জন্য তরুণদের প্রস্তুত করা। কারণ তারাই আমাদের ভবিষ্যৎ। এ কারণেই আমি টেস্ট ছেড়ে দিচ্ছি এবং ওয়েনাডে ও টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের দিকে মনোযোগ দেব।'

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা