kalerkantho

সোমবার । ১৮ নভেম্বর ২০১৯। ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

নিজের দুই ম্যাচের পারিশ্রমিক মাঠ কর্মীদের দিলেন সঞ্জু স্যামসন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৩:৩৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নিজের দুই ম্যাচের পারিশ্রমিক মাঠ কর্মীদের দিলেন সঞ্জু স্যামসন

মাঠে খেলেন ক্রিকেটাররা আর গ্যালারিতে দর্শকরা তা উপভোগ করেন। কিন্তু একটা ক্রিকেট ম্যাচ আয়োজনের পিছনে কত মানুষের অবদান থাকে বলুন তো! ভালো পারফরম্যান্স করলে ক্রিকেটপ্রেমীরা প্রিয় ক্রিকেটারদের মাথায় তুলে রাখেন। ম্যাচ বা টুর্নামেন্ট সেরা হলে একজন ক্রিকেটারের অর্জিত আর্থিক পুরস্কারে অঙ্কটাও হয় বড়। সেখানে ঝড়-জল-রোদ উপেক্ষা করে ক্রিকেট মাঠ খেলার উপযুক্ত করে তোলা মাঠকর্মীরা কত টাকাই বা পান!

তারকাখ্যাতি কিংবা স্বল্প বেতন পেলেও মাঠকর্মীদের পরিশ্রমে কোনো খামতি থাকে না। মাঠের পরিচর্যায় তাদের অবদান অনস্বীকার্য। তারা নিজেদের কাজ ঠিকঠাক না করলে পুরো ম্যাচটাই বিগড়ে যেতে পারে। কিন্তু কয়জন ক্রিকেটারই বা তাদের এই পরিশ্রম, অবদানের কথা মাথায় রাখেন! ভারতের উঠতি ক্রিকেট তারকা সঞ্জু স্যামসন কিন্তু মনে রেখেছেন। যে কারণে তিরুবনন্তপূরমের গ্রিনফিল্ড স্টেডিয়ামের মাঠকর্মীদের দুই ম্যাচের পারিশ্রমিক বন্টন করে দিয়েছেন এই ক্রিকেটার।

দক্ষিণ আফ্রিকা 'এ' দলের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের সিরিজ ৪-১ ব্যবধানে জিতে নিয়েছে ভারতীয় 'এ' দল। সিরিজের শেষ ম্যাচের আগের দুই দিন প্রবল বৃষ্টি হয়েছিল তিরুবনন্তপূরমে। মাঠ এতটাই ভিজে গিয়েছিল যে, ম্যাচ হওয়ার মতো পরিস্থিতি ছিল না। একটা সময় ম্যাচ পরিত্যক্ত ঘোষণা করার সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছিলেন আয়োজকেরা। কিন্তু মাঠ কর্মীদের চেষ্টা ও পরিশ্রমে শেষ পর্যন্ত ম্যাচ আয়োজন করা সম্ভব হয়েছিল। এই ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকা 'এ' দলকে ৩৬ রানে হারিয়ে দিয়েছে ভারতীয় 'এ' দল।

সঞ্জু স্যামসন বললেন, 'গ্রাউন্ড স্টাফরা না থাকলে এই ম্যাচটা হতোই না। এই ম্যাচটা হওয়ার পুরো কৃতিত্বই মাঠ কর্মীদের। ওদের পরিশ্রম প্রশংসা করার মতো।' ম্যাচ শেষে ভারতীয় দলের আরেক তারকা শিখর ধাওয়ানও মাঠ কর্মীদের প্রশংসা করেন এবং তাদের সঙ্গে সেলফি তোলেন। এদিন বৃষ্টির জন্য ম্যাচ হয় ২০ ওভারে। প্রথমে ব্যাটিং করে ভারতীয় দল ৪ উইকেট হারিয়ে ২০৪ রান তোলে। দক্ষিণ আফ্রিকা 'এ' দল গুটিয়ে যায় ১৬৮ রানে। মাঠকর্মীদের জন্য বাড়তি আনন্দ হয়ে আসে সঞ্জুর দেওয়া উপহার।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা