kalerkantho

বুধবার । ২০ নভেম্বর ২০১৯। ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

সাকিব-ইমরানের রেকর্ড ছুঁলেন রশিদ খান

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১১:২৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সাকিব-ইমরানের রেকর্ড ছুঁলেন রশিদ খান

টেস্ট ক্রিকেটে বিশ্বের চতুর্থ খেলোয়াড় হিসেবে অধিনায়কত্ব করতে নেমে অভিষেক ম্যাচেই ব্যাট হাতে হাফ-সেঞ্চুরি ও পাঁচ উইকেট নেয়ার রেকর্ড গড়লেন আফগানিস্তানের রশিদ খান। চট্টগ্রামে বাংলাদেশের বিপক্ষে চলমান টেস্টের প্রথম ইনিংসে ব্যাট হাতে ৬১ বলে ৫১ রান ও বল হাতে ৫৫ রানে ৫ উইকেট নিয়ে এই তালিকায় নাম তুলেন তিনি। এই তালিকায় আগেই নাম তুলেছেন ইংল্যান্ডের ফ্রাঙ্ক স্ট্যানলি জ্যাকসন, পাকিস্তানের ইমরান খান ও বাংলাদেশের সাকিব আল হাসান।

১৯০৫ সালে নটিংহামে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে অধিনায়ক হিসেবে অভিষেক হয় জ্যাকসনের। অভিষেক ম্যাচের প্রথম ইনিংসে বল হাতে ৫২ রানে ৫ উইকেট ও দ্বিতীয় ইনিংসে অপরাজিত ৮২ রান করেন। এরপর ১৯৮২ সালে বার্মিংহামে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্টে অধিনায়ক হিসেবে প্রথম ম্যাচ খেলতে নামেন ইমরান। প্রথম ইনিংসে ৫২ রানে ৭ উইকেট ও দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট হাতে ৬৫ রান করেন ইমরান।

২০০৯ সালে বর্তমান ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজার নেতৃত্বে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে যায় বাংলাদেশ। দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম ম্যাচেই হাঁটুর ইনজুরিতে পড়েন মাশরাফি। ফলে ওই ম্যাচে ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক হিসেবে নেতৃত্ব দেন সাকিব। নিজের অভিষেক টেস্ট অধিনায়কত্বের ম্যাচের দ্বিতীয় ইনিংসে ৭০ রানে ৫ উইকেট ও ব্যাট হাতে অপরাজিত ৯৬ রান করেন। তার নৈপুণ্যেই ২-০ ব্যবধানে সিরিজ নিশ্চিত করে বাংলাদেশ। সেটিই বাংলাদেশের টেস্ট ইতিহাসে বিদেশের মাটিতে প্রথম সিরিজ জয়।

ব্যাট-বল হাতে চট্টগ্রাম টেস্টে রেকর্ড গড়ার আগে আরও বিশ্বরেকর্ড গড়েন রশিদ। সবচেয়ে কম বয়সে টেস্ট অধিনায়কত্ব করতে নেমেই ওই রেকর্ড হয়ে যায় তার। ২০ বছর ৩৫০তম দিনে টেস্ট ফরম্যাটে নেতৃত্ব দিতে নামেন তিনি। ফলে ভেঙ্গে যায় জিম্বাবুয়ের তাতেন্ডো টাইবুর বিশ্বরেকর্ডটি। এতোদিন এই রেকর্ডের মালিক ছিলেন তিনি। ২০ বছর ৩৫৮তম দিনে জিম্বাবুয়েকে টেস্টে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন টাইবু। টাইবুর বিশ্বরেকর্ড ভেঙ্গে দখলে নিয়েছেন রশিদ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা