kalerkantho

রবিবার। ১৭ নভেম্বর ২০১৯। ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

ব্র্যাডম্যান আর স্মিথ যদি একইসঙ্গে খেলতেন...

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১১:১১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ব্র্যাডম্যান আর স্মিথ যদি একইসঙ্গে খেলতেন...

ছবি : ক্রিকইনফো

ক্রিকেট ইতিহাসে অমর হয়ে আছেন স্যার ডন ব্র্যাডম্যান। তার পরবর্তী যুগের ক্রিকেটারদের যোগ্যতা পরিমাপের জন্য ব্র্যাডম্যানের সঙ্গে তুলনা করা হয়। তবে 'একালের ব্র্যাডম্যান' উপাধিটা পাকাপাকিভাবেই দখল করে রেখেছেন ভারতের ব্যাটিং কিংবদন্তি শচীন টেন্ডুলকার। এবার এই উপাধি নিয়ে নিশ্চয়ই কাড়াকাড়ি শুরু হবে স্টিভেন স্মিথের সঙ্গে। ব্র্যাডম্যানের উত্তরসূরি সাবেক অজি অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ যে রানের পাগলা ঘোড়া ছুটিয়েছেন! 

চলছে অ্যাশেজ সিরিজ। প্রথম টেস্টের দুই ইনিংসে সেঞ্চুরি। পরের টেস্টে ৯২ রান করে আহত হওয়ায় আর খেলতে পারেননি। ইনজুরিতে মিস করেছেন তৃতীয় টেস্ট। চতুর্থ টেস্টে ফিরেই আবারও সেই ভয়ংকর স্টিভেন স্মিথ। প্রথম ইনিংসে ডাবল সেঞ্চুরির পর দ্বিতীয় ইনিংসে ৮২। কোনোভাবেই থামনো যাচ্ছে না এই ব্যাটিং বিস্ময়কে। চলতি অ্যাশেজে তার ইনিংসগুলো এরকম- ১৪৪, ১৪২, ৯২, ২১১ এবং ৮২! ৫ ইনিংসে মোট ৬৭১ রান; গড় ১৩৪.২০! দেখে মনে হয়, এই স্মিথই এক বছর পুরো ক্রিকেট দুনিয়ায় নিষিদ্ধ ছিলেন! 

টেস্টে অবিশ্বাস্য গড় ৯৯.৯৪ এর জন্য ইতিহাসে অমর হয়ে আছেন স্যার ডোনাল্ড ব্র্যাডম্যান। ৫২ ম্যাচের ৮০ ইনিংসে ৬৯৯৬ রানের মালিক ব্র্যাডম্যান। ২৯ সেঞ্চুরির মধ্যে সর্বোচ্চ স্কোর ৩৩৪ রান। খুব দ্রুতই তাকে ধরে ফেলবেন ৬৬ ম্যাচের ১২০ ইনিংসে ৬৩.২৪ গড়ে ৬৫৭৭ রানের মালিক স্মিথ। সেঞ্চুরি হয়ে গেছে ২৬টি। সর্বোচ্চ ২৩৯। তাকে নিয়ে ইতিমধ্যেই ব্র্যাডম্যানের সঙ্গে তুলনা করা হচ্ছে। শচীনের একচ্ছত্র উপাধিতে টান পড়েছে। ক্রিকেটপ্রেমীরা অনেকটা আবেগ নিয়েই ভাবছেন, আহা যদি ব্র্যাডম্যান আর স্মিথ একইসঙ্গে খেলতেন! 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা