kalerkantho

বুধবার । ১৩ নভেম্বর ২০১৯। ২৮ কার্তিক ১৪২৬। ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

৩৪২ রানে অলআউট আফগানরা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১২:০৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



৩৪২ রানে অলআউট আফগানরা

৩৪২ রানে গুটিয়ে গেল আফগানিস্তানের প্রথম ইনিংস। দলীয় ২৭১ রান নিয়ে আজ শুক্রবার দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরু করে আফগানিস্তান।  

তবে দ্বিতীয় দিনের শুরুটা মোটেই ভালো হয়নি আফগানদের। কারণ দ্বিতীয় দিনের শুরুতেই ৮৮ রানে অপরাজিত থাকা আসগর আফগানকে ফিরিয়ে দেন তাইজুল ইসলাম। এর কিছুক্ষণ পরে ৪১ রানে অপরাজিত থাকা আফসার জাজাইকে বোল্ড করেন এই বাঁহাতি। আউট হওয়ার আগে আসগর আফগান ১৭৪ বলে ৩টি চার ও দুটি ছক্কায় ৯২ রান করেন।

অপরাজিত এই দুই ব্যাটসম্যান চলে যাওয়ার পরে পরবর্তী ব্যাটসম্যানরা লম্বা সময় ক্রিজে টিকে থাকতে পারেনি। কারণ তাইজুলের পর সাকিবের বোলিং চাপ সামাল দিতে ব্যর্থ হন তারা। মাত্র ৫ রানের মধ্যে কাইস আহমেদ ও ইয়ামিন আহমাদজাইকে আউট করে ড্রেসিংরুমে ফেরান সাকিব। তারা যাওয়ার পর ক্রিজে দলপতি রশিদ খান  থাকলেও দলীয় রান ৩৫০ টপকাতে পারেনি। কারণ মিরাজের বলে অর্ধশতক করা রশিদ খান ক্যাচ আউট হয়ে বিদায় নেন। ফলে ৩৪২ রানে অলআউট হয়ে যায় আফগানিস্তান।

এর আগে গতকাল বৃহস্পতিবার টসে জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি আফগানদের। ৪৮ রানের মধ্যে তাদের দুই ওপেনারকে ফিরিয়ে দেন তাইজুল। এরপর হাশমতউল্লাহ ও রহমত শাহ রানের চাকা কিছুটা বাড়াতে চাইলেও লাঞ্চ বিরতির আগের ওভারে হাশমতউল্লাহকে মাহমুদউল্লাহ ফিরিয়ে দিলে প্রথম সেশনটা নিজেদের করে নেয় বাংলাদেশ। ৩ উইকেটে ৭৭ রান নিয়ে প্রথম সেশন শেষ করে আফগানিস্তান।

কিন্তু দ্বিতীয় সেশনে কোন উইকেটই হারায়নি আফগানরা। চতুর্থ উইকেটে রহমত শাহ ও আসগর আফগানের  জুটিতে দলীয় স্কোর ১৯৭ রানে গিয়ে দাড়ায়। এরইমধ্যে আসগর আফগান অর্ধশতক হাকান। তার পাশাপাশি  আফগানিস্তানের ইতিহাসের প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে শতক তুলে নেন রহমত শাহ। তবে শেষ সেশনে নাঈমের বলে ফিরে যান তিনি। আউট হওয়ার আগে ১০ চার ও ২ ছক্কায় ১০২ রান করেন তিনি। 

রহমত শাহর পরপরই মোহাম্মদ নবীকেও ফিরিয়ে দেন নাঈম তখন মনে হচ্ছিল নিজেদের স্কোরটা খুব বেশি বড় করতে পারবে না আফগানিস্তান। কিন্তু সেই শঙ্কা দূর করেন আসগর আফগান ও তরুণ আফসার জাজাই৷ ষষ্ঠ উইকেটে এই দুইজনের ৭৪ রানের অপরাজিত জুটিতে ৫ উইকেটে ২৭১ রান নিয়ে দিনশেষ করে আফগানিস্তান।      

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা