kalerkantho

শুক্রবার । ১৫ নভেম্বর ২০১৯। ৩০ কার্তিক ১৪২৬। ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

আজগর আফগানের হাফসেঞ্চুরি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৬:১৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আজগর আফগানের হাফসেঞ্চুরি

বাংলাদেশের বিরুদ্ধে খেলার আগে টেস্ট ক্রিকেটে একটি মাত্র হাফসেঞ্চুরি ছিলো আজগর আফগানের। কিন্তু চট্টগ্রামে খেলতে নেমে নিজের টেস্ট ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় হাফসেঞ্চুরি তুলে নিলেন আজগর। তার জন্য তিনি ৯৮টি বল খেলেন। হাফসেঞ্চুরি স্পর্শ করতে তিনি একটি ছয় ও ২টি চার মেরেছেন। সেই সঙ্গে তারা দলীয় ২০০ রান স্পর্শ করেছেন। 

এর আগে আজ বৃহস্পতিবার সকালে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন আফগান অধিনায়ক রশিদ খান। খেলতে নেমে প্রথম ইনিংসে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা শুভ হয়নি আফগানদের। দলীয় স্কোরবোর্ডে ১৯ রান উঠতেই ফিরে যান ওপেনার ইহসানউল্লাহ। তাইজুল ইসলামের বলে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেরেন তিনি। এ নিয়ে ক্রিকেটের দীর্ঘ পরিসরে উইকেটের 'সেঞ্চুরি' করেন তিনি। পরে ইব্রাহিম জাদরানকে নিয়ে প্রাথমিক ধাক্কা কাটিয়ে ওঠার চেষ্টা করেন রহমত শাহ। কিন্তু পেরে উঠেননি। ইব্রাহিমকে তুলে নিয়ে জুটি ভাঙেন তাইজুল।

এদিকে একটু বৈচিত্রের জন্য লাঞ্চের আগে শেষ ওভারটিতে মাহমুদউল্লাহর হাতে বল তুলে দেন সাকিব আল হাসান। প্রথম ওভারেই এই অলরাউন্ডার দলকে এনে দিলেন উইকেট! সৌম্যর হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন হাশমতউল্লাহ। তবে সতর্কভাবে খেলে সেঞ্চুরি তুলে নেন রহমত শাহ। কিন্তু এর বেশি এগোতে পারেননি তিনি। সেঞ্চুরি করার পরের বলেই আউট হন রহমত। বাংলাদেশকে কাঙ্ক্ষিত ব্রেক থ্রু এনে দেন নাঈম হাসান। তার বলে সৌম্যর হাতে ক্যাচ দেন তিনি। খেলতে নেমে রানের খাতা খুলতে পারলেন না মোহাম্মদ নবি। নাঈমের বলে লেগ স্টাম্প হারিয়ে সাজঘরে ফেরেন তিনি। 

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ৭৩ ওভার খেলে ২০০ রান সংগ্রহ করেছে আফগানিস্তান। এ রান তুলতে তারা হারিয়েছেন ৫টি উইকেট। ক্রিজে আছেন আজগর আফগান এবং আফসার জাজাই। ৯৮ বলে খেলে আজগর করেছেন ৫০ রান। অন্যদিকে ৮ বল খেলে আফসার করেছেন ২ রান।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা