kalerkantho

শুক্রবার । ১৫ নভেম্বর ২০১৯। ৩০ কার্তিক ১৪২৬। ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

শামির বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা; আত্মসমর্পণের নির্দেশ!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ২০:২১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শামির বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা; আত্মসমর্পণের নির্দেশ!

ভারতের তারকা পেসার মোহাম্মদ শামি আবারও বিপদে পড়ে গেছেন। সেরা ফর্মে থাকা এই পেসারের বিরুদ্ধে আজ সোমবার গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। আগামী ১৫ দিনের মধ্যে আত্মসমর্পণ না করলেই গ্রেপ্তার করা হবে তাকে। একইসঙ্গে শামির বড় ভাই হাসিদ আহমেদের বিরুদ্ধেও গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করল আলিপুরের অতিরিক্ত মুখ্য দায়রা আদালত। শামি এবং তার বড় ভাইয়ের বিরুদ্ধে পারিবারিক নির্যাতনের অভিযোগে মামলা দায়ের করেছিলেন স্ত্রী হাসিন জাহান। 

এমন একটা সময়ে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে যখন জাতীয় দলের সঙ্গে উইন্ডিজ সফরে আছেন শামি। আদালতের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে যে, বিদেশ সফরে থাকায় অতিরিক্ত ১৫ দিন সময় দেওয়া হয়েছে শামিকে। আদালতে হাজিরা না দেওয়ার কারণেই তার বিরুদ্ধে এই গ্রেপ্তারি পরোয়ানা। তবে তার বড় ভাইয়ের ক্ষেত্রে আজ সোমবার থেকেই গ্রেপ্তারি পরোয়ানা কার্যকর হবে। অর্থাৎ দেশে ফিরেই শামি আত্মসমর্পণ না করলে পরিস্থিতি আরও জটিল হবে। তবে জামিনের জন্যও আবেদন করতে পারবেন শামি।

গতবছর শামির বিরুদ্ধে বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্ক, বৈবাহিক ধর্ষণ, গার্হস্থ্য হিংসার মতো একাধিক গুরুতর অভিযোগ তুলেছিলেন হাসিন। এমনকি শামির বড় ভাই হাসিদও তাকে একাধিকবার শারিরীক সম্পর্কে বাধ্য করেন বলেও অভিযোগে উল্লেখ করা হয়। ভারতীয় দণ্ডবিধির ৪৯৮এ ধারায় শামি ও তার দাদার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়। কিন্তু তারপর থেকে একবারও আলিপুরের অতিরিক্ত মুখ্য দায়রা আদালতে হাজিরা দেননি শামি। বরাবরই নিজের উপরে ওঠা সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছেন তিনি।

এদিকে হাল ছাড়েননি হাসিন। ক্রিকেটের ফিক্সিং সংক্রান্ত বিষয়েও শামির নাম জড়ানোর চেষ্টা করেছিলেন। তবে বিসিসিআইয়ের তদন্তের পর ক্লিনচিট পেয়ে মাঠে কামব্যাক করেছিলেন শামি। বিশ্বকাপে দারুণ পারফর্মেন্স করেছেন। কিন্তু এবার স্ত্রী নির্যাতন মামলায় আবারও সমস্যা নেমে এল তার জীবনে। এখন দেখার, পারিবারিক নির্যাতনের এমন গুরুতর অভিযোগ কীভাবে সামাল দেন ভারতীয় পেসার।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা