kalerkantho

অবিশ্বাস্য বেন স্টোকস! অকল্পনীয় জয়!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৫ আগস্ট, ২০১৯ ২১:৪০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অবিশ্বাস্য বেন স্টোকস! অকল্পনীয় জয়!

জয়সূচক রানটি নিয়েই উল্লাসে ফেটে পড়েন বেন স্টোকস। ছবি : এএফপি

আগের ইনিংসে যে দলটি মাত্র ৬৭ রানে অল-আউট হয়ে গেছে; সেই দলটিই যদি ৩৫৯ রান তাড়া করে জিতে যায়; সেটা অবিশ্বাস্য বললেও কম বলা হবে। এমনটাই ঘটল অ্যাশেজে। প্রথম ম্যাচে জয় পাওয়া অস্ট্রেলিয়াকে ১ উইকেটে হারিয়ে অকল্পনীয় জয় তুলে নিয়েছে স্বাগতিক ইংল্যান্ড। বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের এই জয়ে অতিমানবীয় ইনিংস খেলেছেন অল-রাউন্ডার বেন স্টোকস। তার অপরাজিত ১৩৫ রানের ইনিংসেই জয়ের পথে এগিয়ে যায় ইংলিশরা।

গতকাল ম্যাচের তৃতীয় দিনে অধিনায়ক জো রুট আর জো ড্যানলির ১২৬ রানের জুটিতে সুবিধাজনক অবস্থায় ছিল ইংল্যান্ড। রুট করেছিলেন ৭৭ রান। আজ রবিবার হেডিংলি টেস্টের চতুর্থ দিনে জয়ের জন্য ইংল্যান্ডের দরকার ছিল ২০৩ রান। হাতে ছিল ৭ উইকেট। বেন স্টোকসকে কিছুটা সময় সঙ্গ দেন জনি বেয়ারস্টো (৩৬)। পঞ্চম উইকেট জুটিতে আসে ৮৬ রান। এরপর আর কেউ স্টোকসকে সঙ্গ দিতে পারেননি। একাই একপ্রান্ত আগলে লড়ে যান ইংল্যান্ডের বিশ্বকাপ জয়ের নায়ক। অসীম ধৈর্য্যের পরিচয় দিয়ে ১৫২ বলে হাফ সেঞ্চুরি পূরণ করেন তিনি।

অজি বোলারদের তোপে জস বাটলার (১), ক্রিস ওকস (১), জোফরা আর্চার (১৫), স্টুয়ার্ট ব্রড (০) কেউ দাঁড়াতেই পারেননি। শেষ ব্যাটসম্যান উইকেটে আসার পর দলকে জেতানোর দায়িত্ব পুরোপুরি নিজের কাঁধে তুলে নেন স্টোকস। ১১ নম্বর ব্যাটসম্যান জ্যাক লিচের সঙ্গে গড়েন অবিচ্ছিন্ন ৭৬* রানের জুটি। এতে লিচের অবদান মাত্র ১ রান! দলকে জেতানোর পথে ১৯৯ বলে ক্যারিয়ারের ৮ম সেঞ্চুরি তুলে নেন স্টোকস। তিনি অপরাজিত থাকেন ২১৯ বলে ১৩৫* রানে।

এই ম্যাচ জিতে অবিশ্বাস্য এক রেকর্ডে নাম লিখিয়ে ফেলল ইংল্যান্ড; যা সর্বশেষ দেখা গিয়েছিল ১৩১ বছর আগে! প্রথম ইনিংসে ন্যূনতম ৭০ রানের নিচে অল-আউট হয়েও ম্যাচ জয়ের রেকর্ড এতদিন ছিল অস্ট্রেলিয়ার। এবার তাতে ভাগ বসাল ইংল্যান্ড। ১৮৮৮ সালে এই অ্যাশেজ সিরিজেই লর্ডস টেস্টে প্রথম ইনিংসে ১১৬ রান তুলেছিল পার্সি ম্যাকডনেল-অ্যালেক বানারম্যানের অস্ট্রেলিয়া। কিন্তু নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে তারা অল-আউট হয়েছিল মাত্র ৬০ রানে। দুই ইনিংসে এত কম সংগ্রহ নিয়েও অজিরা কিন্তু ম্যাচটা জিতেছিল! কারণ চার্লি টার্নার ও জে জে ফেরিসের তোপে ইংল্যান্ড প্রথম ইনিংসে তুলেছিল ৫৩ আর দ্বিতীয় ইনিংসে ৬২।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা