kalerkantho

অ্যানফিল্ডে ভাগ্য বদলের আশায় মাঠে নামবে আর্সেনাল

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৪ আগস্ট, ২০১৯ ০৮:৫৯ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



অ্যানফিল্ডে ভাগ্য বদলের আশায় মাঠে নামবে আর্সেনাল

অ্যানফিল্ড দুঃস্বপ্ন হয়ে আছে আর্সেনালের। লিভারপুলের মাঠে সব শেষ দুই প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে বিধ্বস্ত হয়েছিল তারা। হারতে হয়েছে ৪-০ আর ৫-১ গোলে। আজ আবারও প্রিমিয়ার লিগে অ্যানফিল্ডে মুখোমুখি হবে দুই দল। আর্সেনালের ভাগ্যটা বদলাকে কি? এবারের লিগে টানা দুই ম্যাচ জিতেছে শুধু লিভারপুল, আর্সেনাল। দারুণ শুরুর ছন্দটা ধরে রাখতে প্রত্যয়ী আর্সেনাল কোচ উনাই এমেরি। বলেন, ‘লিভারপুলের সঙ্গে খেলা সব সময় বড় চ্যালেঞ্জ। লিভারপুল, ম্যানচেস্টার সিটি, টটেনহাম গত কয়েক মৌসুমে এগিয়ে গেছে আমাদের চেয়ে। আমরা এবার ব্যবধানটা কমাতে চাই।’

এ ছাড়া আজ প্রিমিয়ার লিগে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড মুখোমুখি হবে ক্রিস্টাল প্যালেসের আর চেলসির প্রতিপক্ষ নরউইচ সিটি। স্প্যানিশ লা লিগায় রিয়াল মাদ্রিদ নিজেদের মাঠে মুখোমুখি হবে রিয়াল ভায়াদোলিদের। সেল্তা ভিগো খেলবে ভ্যালেন্সিয়ার বিপক্ষে আর বার্সেলোনাকে হারিয়ে চমকে দেওয়া অ্যাথলেতিক বিলবাওয়ের প্রতিপক্ষ গেতাফে।

গত মৌসুমে শিরোপা জয়ের দ্বারপ্রান্তে ছিল লিভারপুল। তবে ম্যানচেস্টার সিটির সঙ্গে পেরে ওঠেনি শেষ পর্যন্ত। জ্বালাটা তারা জুড়ায় চ্যাম্পিয়নস লিগ জিতে। গত মৌসুমে প্রিমিয়ার লিগে রক্ষণটা বেশ শক্তিশালী ছিল অলরেডদের। ২০ ম্যাচে গোলই হজম করেনি ইয়ুর্গেন ক্লপের দল। অথচ নতুন মৌসুমে নড়বড়ে গর্বের সেই রক্ষণ। কমিউনিটি শিল্ডে ম্যানচেস্টার সিটি, উয়েফা সুপার কাপে চেলসি আর প্রিমিয়ার লিগে নরউইচ ও সাউদাম্পন গোল করেছে লিভারপুলের বিপক্ষে। গোলরক্ষক আলিসন বাকেরের চোট দলকে ভোগাচ্ছে বেশ। তাই আজ আর্সেনালের মতো আক্রমণাত্মক দলের বিপক্ষে কি আঁটসাঁট রক্ষণ নিয়ে খেলবে লিভারপুল? কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপ আত্মবিশ্বাসী তাঁর দল নিয়ে, ‘আমি বেশির ভাগ সময় ভালো মানের খেলোয়াড় নিয়ে খেলেছি, বিশ্বমানের খেলোয়াড় কম ছিল আমার দলে। এখন ভাগ্যবান ভাবছি নিজেকে। লিভারপুলে মানে, ফিরমিনো, সালাহদের মতো বিশ্বমানের ফুটবলার আছে। আমরা যেভাবে খেলে এত দিন সফল হয়েছি সেভাবেই খেলব আর্সেনালের সঙ্গে। আমি আত্মবিশ্বাসী।’

এদিকে লা লিগায় রিয়াল মাদ্রিদের শুরুটা হয়েছে জয় দিয়ে। সেই ধারাবাহিকতাটা আজ রিয়াল ভায়াদোলিদের বিপক্ষেও ধরে রাখতে চায় জিনেদিন জিদানের দল। তবে ম্যাচের আগের সংবাদ সম্মেলনে খেলার পরিকল্পনার বদলে জিনেদিন জিদানকে বেশি শুনতে হলো ট্রান্সফার নিয়ে প্রশ্ন। গোলরক্ষক কেইলর নাভাস নাকি রিয়াল ছাড়ার আরজি জানিয়েছেন। অথচ এ নিয়ে জিদানের কিছু জানা নেই। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘নাভাসকে ছাড়া রিয়াল কল্পনা করতে পারি না। ও সব সময় গুরুত্বপূর্ণ ছিল, আছে আর ভবিষ্যতেও থাকবে। আমাকে নাভাস বলেনি ও রিয়াল ছাড়তে চায়। ও খেলতে চায় যা আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা