kalerkantho

বুধবার । ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭। ১২ আগস্ট ২০২০ । ২১ জিলহজ ১৪৪১

গাঙ্গুলীর কারণেই থেমে গিয়েছিল এই পাঁচ তারকার ক্যারিয়ার?

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৩ আগস্ট, ২০১৯ ১৭:০৪ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



গাঙ্গুলীর কারণেই থেমে গিয়েছিল এই পাঁচ তারকার ক্যারিয়ার?

ভারতের সাবেক অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলী নেতা হিসেবে বিশ্বখ্যাত। ক্রিকেটারদের মাঝেও তিনি তুমুল জনপ্রিয়। তার আমলে যুবরাজ সিং, মোহাম্মদ কাইফ, জাহির খান, আশিস নেহরা, হরভজন সিং, মহেন্দ্র সিং ধোনির মতো বহু তারকা উঠে এসেছে ভারতীয় ক্রিকেটে। আবার অনেকে হারিয়েও গেছেন। দুইশর ওপর ম্যাচে অধিনায়কত্ব করা গাঙ্গুলীর স্নেহধন্যরা এখনও সৌরভের স্তুতি করেন। তবে কিছু ক্রিকেটারের জন্য তিনি হয়তো অতটা প্রিয় নয়।

ওয়াসিম জাফর : প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ১৯,১৪৭ রান করেছেন। রয়েছে ৫৭টি সেঞ্চুরিও। গড় ৫১.১৯।কিন্তু আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে খেলেছেন মাত্র ৩১টি টেস্ট। ২০০০ সালে অভিষেক ঘটলেও সে বছর খেলেন মাত্র দুটি ম্যাচ। ২০০২ সালে সৌরভের নেতৃত্বে ফিরে আসেন তিনি। কিন্তু মাত্র ৫টি টেস্ট খেলেই আবার বাদ পড়েন। আর ফেরা হয়নি। সেই ৯ ইনিংসে করেছিলেন ২১৫ রান। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে নিয়মিত রান পেলেও এর পর উপেক্ষাই জুটেছে এই ওপেনারের কপালে।

দিনেশ কার্তিক : ২০০৪ সালে ১৯ বছর বয়সে অভিষেক ঘটে তামিলনাড়ুর এই উইকেটকিপার ব্যাটসম্যানের। ঘরোয়া ক্রিকেটে প্রায় ১০ হাজার রান করলেও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সুযোগ হেলায় নষ্ট করেছেন বার বার। সৌরভের সময় বহু উইকেটকিপার খেললেও কার্তিক খেলেছিলেন মাত্র দুটি ওয়ানডে। বহু অধিনায়কের নেতৃত্বে খেলেছেন তিনি। কিন্তু সব চেয়ে কম সুযোগ পেয়েছিলেন সৌরভের ভারতীয় দলে।

আকাশ চোপড়া : ভারতীয় ক্রিকেটে আরও এক ওপেনার যার আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার অল্পতেই থেমে গেছে। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ১৬২টি ম্যাচে করেছেন ১০,৮৩৯ রান। গড় ৪৫.৩৫। কিন্তু টেস্ট খেলেছেন মাত্র ১০টি। সৌরভের সময়কালে খেলেছেন ৬টি টেস্ট। রান করেছিলেন ২৬৪। টেকনিকের দিক থেকে তিনি এগিয়ে থাকলেও সে ভাবে রান পাননি। সৌরভের থেকে সেভাবে সাহায্যও পাননি। অন্য ওপেনার শেবাগ দাপিয়ে খেললেও তার সঙ্গী পেতে বেশ ঘাম ঝরাতে হয়েছিল ভারতকে।

রমেশ পাওয়ার : এখনকার ভারতীয় ক্রিকেটের ফিটনেসের সঙ্গে পাল্লা দিতে তো তিনি পারতেনই না, সেই সময়ের ফিটনেসের উপযোগীও ছিলেননা এই অফস্পিনার। যদিও প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে নিয়েছেন ১৩১টি উইকেট।  সৌরভের অধিনায়কত্বে ২০০৪ সালে তার অভিষেক হলেও খেলেছিলেন মাত্র দু’টি ওয়ানডে। পাকিস্তানের বিপক্ষে সেই দুই ম্যাচে কোনো উইকেট পাননি। হরভজন-কুম্বলের মাঝে তিনি হারিয়ে যান। সৌরভ অন্য কোনো স্পিনারকে সুযোগও দেননি সেই সময়।

সুনীল জোশি : বাংলাদেশের সদ্য সাবেক এই স্পিন কোচ প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ১৬০ ম্যাচে নিয়েছেন ৬১৫টি উইকেট এবং করেছেন ৫১২৯ রান। ১৯৯৬ সালে বাঁহাতি এই স্পিনারের ভারতীয় দলে অভিষেক ঘটে। খেলেছিলেন ১৫টি টেস্ট এবং ৬৯টি ওয়ানডে। তার আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার শেষ হয় সৌরভের সময় ২০০১ সালে। তারপর ১০ বছর ঘরোয়া ক্রিকেট খেললেও জায়গা হয়নি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে। সৌরভের অধিনায়কত্বে ২৪টি ম্যাচ খেলেছিলেন; তবে জায়গা পাকা করতে পারেননি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা