kalerkantho

আর্চারকে 'মানসিক ভারসাম্যহীন' বলে তীব্র সমালোচনা!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৮ আগস্ট, ২০১৯ ১৯:০৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আর্চারকে 'মানসিক ভারসাম্যহীন' বলে তীব্র সমালোচনা!

স্টিভেন স্মিথ (বামে) যখন বাউন্সারের আঘাতে মাটিতে পড়ে যান, তখন এভাবেই হাসছিলেন জোফরা আর্চার (ডানে)। ছবি : এএফপি

লর্ডস টেস্টের প্রথম ইনিংসে গতকাল মাথায় মারাত্মক আঘাত পেয়েছেন সাবেক অস্ট্রেলিয়া অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ। জোফরা আর্চারের শর্ট বল তার কানের পাশে খালি জায়গায় লাগলে মাঠ ছাড়তে হয়। পরে ব্যাটিংয়ে নামলেও টানা তৃতীয় সেঞ্চুরি করতে পারেননি। আউট হয়েছেন নার্ভাস নাইন্টিজে। ওই ঘটনার পর ক্রিকেটাঙ্গনে তীব্র সমালোচনা শুরু হয়েছে ইংলিশ পেসারের স্পোর্টসম্যানশিপ নিয়ে।

স্মিথ আহত হয়ে মাঠে লুটিয়ে পড়ার পর মুহূর্তে ফিরে এসেছিল ফিল হিউজেসের স্মৃতি। মাঠে লুটিয়ে পড়ার পর ইংল্যান্ডের বাকি ক্রিকেটাররা স্মিথের কাছে এগিয়ে গেলেও জোফরা আর্চার কিন্তু যাননি। বরং উইকেটে দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে হাসছিলেন তিনি। তারপর তিনি ফিরে যান নিজের বোলিং পজিশনে। আর্চারের এমন আচরণের তীব্র সমালোচনা করেছেন ক্রিকেটপ্রেমীরা। সোশ্যাল সাইট ব্যবহারকারীরা অনেকেই তাকে 'মানসিক ভারসাম্যহীন' বলে আক্রমণ করেন।

উল্লেখ্য, প্রথমে আর্চারের একটি বল স্মিথের বাম হাতের কনুইয়ে আঘাত হানে। প্রচণ্ড যন্ত্রণায় কাতর হলেও মাঠেই শুশ্রুষা নিয়ে আবারও ব্যাটিং শুরু করেন স্মিথ। কিন্তু আর্চার যেন গতকাল 'বডি লাইন মন্ত্রে' দীক্ষিত ছিলেন। একের পর এক শর্ট বল করে যাচ্ছিলেন। ইনিংসের ৭৭তম ওভারে আর্চারের ১৪৯ কিলোমিটার গতির একটি শর্ট বল আঘাত হানে স্মিথের কানের পাশে। ইংলিশ ধারাভাষ্যকার ডেভিড লয়েড রসিকতা করে বলেছিলেন, 'স্টিভ স্মিথকে কীভাবে আউট করতে হবে, তা জানা থাকলে দয়া করে ইংল্যান্ড ড্রেসিং রুমকে জানান।'

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা