kalerkantho

বুধবার । ২১ আগস্ট ২০১৯। ৬ ভাদ্র ১৪২৬। ১৯ জিলহজ ১৪৪০

বিশ্বকাপ জয়ের পর অ্যাশেজে চোখ ইংল্যান্ডের

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ জুলাই, ২০১৯ ০৯:৪৩ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বিশ্বকাপ জয়ের পর অ্যাশেজে চোখ ইংল্যান্ডের

ফাইল ছবি

বিজয় মিছিল হয়নি। হয়নি ছাদখোলা বাসে লন্ডন শহর ঘুরে বেড়ানোর উৎসবও। ওভালে সমর্থকদের সঙ্গে উচ্ছ্বাস, এরপর ১০ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিটে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী টেরেসা মের সঙ্গে দেখা করে আসা—ব্যস! ইংল্যান্ডের বিশ্বকাপ জয়ের উদযাপন বলতে ওইটুকুই। বেশি উৎসবে ভেসে গিয়ে অ্যাশেজের প্রস্তুতিতে যে ঘাটতি রাখতে চায় না ইংল্যান্ড!

অ্যাশেজের গুরুত্ব এমনিতেই আলাদা। গতবার অস্ট্রেলিয়া থেকে ৪-০ ব্যবধানে হেরে এসেছে বলে এবার তা আরো বেশি। আর বিশ্বকাপ জয়ের পরও সেটি আরেকটি বেশি বলে দাবি ইংল্যান্ডের টেস্ট অধিনায়ক জো রুটের, ‘অ্যাশেজের আগে অনেক সময় প্রস্তুতি নেওয়া হয়। এর আগের সপ্তাহ দুয়েকের যে উত্তেজনা, তা অতুলনীয়। কেননা এটি তো অন্য যেকোনো একটি টেস্ট সিরিজের মতো না। আমি তাই এবারের অ্যাশেজের জন্য খুব করে মুখিয়ে আছি। এটি বিশাল ব্যাপার। বিশেষত বিশ্বকাপ জয়ের পরপর হওয়ায়। সে কারণে অ্যাশেজ এবার আরো বিশালত্ব নিয়ে হাজির হচ্ছে।’

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে পাঁচ টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচ শুরু হবে পয়লা আগস্ট থেকে, এজবাস্টনে। এর আগে ২৪ জুলাই থেকে লর্ডসে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট খেলবে ইংল্যান্ড। সে টেস্টটি চার দিনের। ১৯৭১ সালের নিউজিল্যান্ড সফরের পর প্রথমবারের মতো পাঁচ দিনের কম দৈর্ঘ্যের টেস্ট ম্যাচ খেলবে ইংল্যান্ড। আইরিশদের বিপক্ষে সে টেস্টে ইনজুরির কারণে খেলতে পারবেন না ফাস্ট বোলার মার্ক উড। তবে অ্যাশেজের আগেই ফিট হয়ে যাবেন তিনি। আরেক ফাস্ট বোলার জোফ্রা আর্চারকেও লর্ডসে বিশ্রাম দিচ্ছে ইংল্যান্ড। আর কাফ ইনজুরি থেকে পেসার জেমস অ্যান্ডারসনের সেরে ওঠার ব্যাপারেও আশাবাদী বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা।

আর আশা অ্যাশেজ পুনরুদ্ধারের। বিশ্বকাপ ফাইনালের ম্যান অব দ্য ম্যাচ বেন স্টোকস বলেছেন সে কথা, ‘আমরা হয়তো বিশ্বচ্যাম্পিয়ন; কিন্তু একই সঙ্গে অ্যাশেজজয়ীও হতে চাই। আমাদের সবার ভেতর এখন বিশ্বচ্যাম্পিয়নের অনুভূতি। সেটি আমাদের প্রাপ্য। তবে যেকোনো খেলায় হারি বা জিতি—দ্রুতই তা ভুলে সামনে তাকাতে হয়। আমরা বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হওয়া উপভোগ করছি, একই সঙ্গে অ্যাশেজের কথাও মাথায় রাখছি।’ সেখানে প্রবল আত্মবিশ্বাসী এক ইংল্যান্ড দলকে দেখা যাবে বলে জানিয়েছেন টেস্ট অধিনায়ক রুট, ‘অ্যাশেজের আগে এর চেয়ে ভালো অবস্থায় আমরা থাকতে পারতাম না। বিশ্বকাপ জয়ের পর সবাই আরেক ধাপ এগোতে চাইবে। আর এজবাস্টনের সেমিফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে আমরা যেভাবে খেলেছি, তাতে ওদের বিপক্ষে অ্যাশেজ শুরুর সময় সবার আত্মবিশ্বাস থাকবে তুঙ্গে। সেখানে আরো ভালো খেলতে চাইবে ছেলেরা।’ সূত্র: এএফপি

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা