kalerkantho

রবিবার । ১৯ জানুয়ারি ২০২০। ৫ মাঘ ১৪২৬। ২২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

বিবিসি বাংলার প্রতিবেদন অবলম্বনে

কোহলির নেতৃত্ব নিয়ে শচীন-সৌরভের প্রশ্ন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১১ জুলাই, ২০১৯ ১৮:৪৭ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



কোহলির নেতৃত্ব নিয়ে শচীন-সৌরভের প্রশ্ন

ছবি : এএফপি

সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডের কাছে ১৮ রানে হেরে বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিয়েছে ভারত। দেশটিতে সমর্থকেরা এখন নানা কাণ্ড করছেন। আগুন দিচ্ছেন ছবিতে। ক্রিকেটারদের বাড়িতে নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে। স্বাভাবিকভাবেই ব্যর্থতার দায়ভার অধিনায়ক বিরাট কোহলির ওপর বর্তেছে। ভারতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলি ও ভি ভি এস লক্ষ্ণণ প্রশ্ন তুলেছেন যে কেন ধোনিকে সাত নম্বরে ব্যাট করতে পাঠানো হল?

ব্যাটিং লিজেন্ড শচীন মনে করেন, ধোনিকে ৭ নম্বরে ব্যাট করতে পাঠিয়ে বড় ভুল করেছেন বিরাট কোহলি। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সেমিফাইনালে হার্দিক পান্ডিয়া আর দীনেশ কার্তিককে ধোনির আগে ব্যাট করতে পাঠানো হয়েছিল। তার আগেই ৫ রানে ৩ উইকেট হারায় ভারত। খুব অল্প সময়ের মধ্যেই ২৪ রানে চার উইকেট হারানোর কারণে মাত্র ২৪০ রানের টার্গেটও তখন অসম্ভব বলে মনে হচ্ছিল।

ভি ভি এস লক্ষ্মন হতাশ গলায় বলছিলেন, 'ধোনিকে পান্ডিয়া আর দীনেশ কার্তিকেরও আগে ব্যাট করতে পাঠানো উচিত ছিল। এটা ভুল স্ট্র্যাটেজি নেওয়া হল। ধোনির কাছে কাজটা একেবারে অসম্ভব ছিল না। ২০১১ বিশ্বকাপের ফাইনালে ধোনি যুবরাজ সিংয়েরও আগে চার নম্বরে ব্যাট করেছিল। সেই বিশ্বকাপটা ভারতের ঘরেই এসেছিল।'

২০১১ বিশ্বকাপ ফাইনালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ধোনি যখন ব্যাট করতে নেমেছিলেন, তার আগে বীরেন্দ্র শেবাগ, শচীন টেন্ডুলকার আর বিরাট কোহলির গুরুত্বপূর্ণ উইকেটগুলো হারিয়ে ফেলেছিল ভারত। ওই ম্যাচে অনেকেই বিস্মিত হয়েছিলেন ধোনির এমন সিদ্ধান্ত দেখে।কিন্তু সেদিন ৭৯ বলে ৯১ রানের একটা অসাধারণ ইনিংস খেলেছিলেন ধোনি।

২০১৮ সালে দেওয়া একটা সাক্ষাতকারে ধোনি ব্যাখ্যা করেছিলেন যে কেন সেদিন তিনি যুবরাজ সিংয়ের আগে ব্যাট করতে নেমেছিলেন, 'শ্রীলঙ্কার বেশিরভাগ বোলারই চেন্নাই সুপার কিংসের হয়ে আই পি এলে খেলতেন। ওদের বোলিং তাই আমার ভীষণ পরিচিত ছিল। তার ওপরে তখন মুরলিধরন বল করছিল। ওকে নেট প্র্যাকটিসে বহুবার খেলেছি। তাই ওর বল খেলতে কোনো অসুবিধা হবে না বলে নিশ্চিত ছিলাম। এটাই আমার সেদিন আগে ব্যাট করতে নামার পিছনে সবথেকে বড় কারণ ছিল।'

সৌরভ গাঙ্গুলি অবশ্য মনে করেন যে বিষয়টা শুধু ধোনির আগে ব্যাটিং করা নয়, 'ধোনি যদি আগে ব্যাট করতে নামত, তাহলে অন্যদিকে যে তরুণ ব্যাটসম্যানরা খেলছিল, তাদেরও নিজের খেলাটা খেলতে বলত এম এস। ঋষভ পন্ট অনেকটা সেট হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু তাকে সঙ্গ দেওয়ার মতো একজন ব্যাটসম্যানের দরকার ছিল। ধোনি সঙ্গে থাকলে যেরকম শট নিয়ে আউট হল ঋষভ, সেই ধরণের শট খেলতে বারণ করত নিসন্দেহে। ইংল্যান্ডের ম্যাচেও ঋষভকে গাইড করেছিল ধোনি।'

গাঙ্গুলী আরও বলেন, 'এরকম একটা সময়ে একজন অভিজ্ঞ খেলোয়াড়ের দরকার ছিল। ঋষভ পন্টকে সঙ্গে ক্ইজে থাকলে ওকে ওইভাবে ব্যাটিং করতে কিছুতেই দিত না ধোনি। জাদেজার সঙ্গে অন্যদিকে ধোনি ছিল। দুজনের মধ্যে মাঝে মাঝেই কথা হচ্ছিল। এম এসের পরামর্শ মতোই ওরা দুজনে এগিয়ে নিয়ে গিয়েছিল অনেকটা। ধোনিকে সাত নম্বরে পাঠানো একেবারেই অনুচিত হয়েছে।ফিনিশার হিসাবে ধোনির খেলা নিয়ে আমি ভীষণ শ্রদ্ধাশীল। ওয়ানডে ম্যাচ কীভাবে জিততে হয়, সেটা ও খুব ভালো জানে।'

গত বছর দেড়েক ধরে ভারতীয় নির্বাচকরা মিডল অর্ডারে কোনো ভালো ব্যাটসম্যান তুলে আনতে পারেন নি। ভিভিএস লক্ষ্মণ মনে করেন যে সবসময়ে রোহিত শর্মা আর ভিরাটের ওপরে ভরসা করে থাকা উচিত নয়। সেমিফাইনালে হারের পর সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে সাবেক ক্রিকেটাররা ওই একটা ভুল সিদ্ধান্তকেই মূলত দায়ী করছেন এখন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা