kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৮ জুলাই ২০১৯। ৩ শ্রাবণ ১৪২৬। ১৪ জিলকদ ১৪৪০

দুর্দান্ত দুই ক্যাচে পাকিস্তানি ওপেনারদের সাজঘরে পাঠালেন গাপটিল

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৬ জুন, ২০১৯ ২১:৫৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দুর্দান্ত দুই ক্যাচে পাকিস্তানি ওপেনারদের সাজঘরে পাঠালেন গাপটিল

নিশাম-গ্র্যান্ডহোমের প্রতিরোধে নিউজিল্যান্ডের দেওয়া ২৩৮ রানের লক্ষ্যে ব্যাটি করছে পাকিস্তান। ব্যাট করতে নেমে এরই মধ্যে দুই উইকেট হারিয়েছে তারা। শুরুতেই ব্যক্তিগত ৯ রানের মাথায় ফখর জামান মার্টিন গাপটিলের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন।

নিউজিল্যান্ড বোলিং তোপে বেশিক্ষণ ঠিকতে পারেননি ইমাম-উল-হকও। তিনিও গাপটিলের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে দিকে হাঁটেন। আউট হওয়া আগে তিনি করেন ১৮ রান। বল হাতে লকি ফার্গুসন ও ট্রেন্ট বোল্ট নিয়েছেন দু’টি উইকেট।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ১২ ওভার খেলে দুই উইকেট হারিয়ে ৪৬ রান সংগ্রহ করেছে পাকিস্তান। ক্রিজে আছেন মোহাম্মদ হাফিজ ও বাবর আজম। ১০ বল খেলে ২ রান করেছেন মোহাম্মদ হাফিজ। অন্যদিকে বাবর আজম করেছেন ২৩ বলে ১৮ রান। 

এর আগে বার্মিংহামে পাকিস্তানের বিপক্ষে টস জিতে খেলতে নেম দ্রুত উইকেট হারাতে থাকে নিউজিল্যান্ড। আমির আর শাহীনের তাণ্ডবে কাঁপতে থাকে কিউই শিবির। মর্টিন গাপটিলকে ৫ রানে বোল্ড করে নিউজিল্যান্ড শিবিরে নিজের প্রথম বলেই আঘাত হানেন মোহাম্মমদ আমির। পরে ১২ রান করা কলিন মুনরো, ৩ রান করা অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান রস টেলর এবং ১ রান করা টম লাতামকে সাজঘরে ফেরান শাহীন আফ্রিদি। হাত খুলে খেলতে থাকা কেন উইলিয়ামসনকে ব্যক্তিগত ৪১ রানের মাথায় সাজঘরে ফেরান শাদাব খান। এর পরেই নিশাম-গ্র্যান্ডহোমের প্রতিরোধ গড়ে তুলেন। চাপের মুখে দুরন্ত হাফসেঞ্চুরি তুলে নিলেন দুইজনেই। কিন্তু ৭১ বল খেলে ৬৪ রান করে রান আউটের শিকার হন কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম। অন্যদিকে ১১২ বলে ৯৭ রান করে ইনিংস শেষ করেই মাঠ ছাড়েন টম ল্যাথাম। তার সঙ্গে অপরাজিত থাকেন মিচেল স্যান্টনার (৫)। সবকটি ওভার খেলে ৬ উইকেট হারিয়ে ২৩৭ রান তুলে তারা।

বিশ্বকাপে টিকে থাকার জন্য পাকিস্তানকে এই ম্যাচ জিততেই হবে। হারলে পাকিস্তানের সেমিফাইনাল স্বপ্ন শেষ হয়ে যাবে। আগের ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে পাকিস্তান অনেকটাই আত্মবিশ্বাসী বলে জানিয়েছেন সরফরাজ। অন্যদিকে নিউজিল্যান্ড অনেকটাই নিরাপদ অবস্থানে আছে। পাকিস্তানের বিপক্ষে আজ জিতলে সেমিফাইনাল নিশ্চিত হবে নিউজিল্যান্ডের।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা