kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৩ জুলাই ২০১৯। ৮ শ্রাবণ ১৪২৬। ১৯ জিলকদ ১৪৪০

খেই হারিয়ে ফেলা অজিদের চ্যালেঞ্জিং স্কোর

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৫ জুন, ২০১৯ ১৯:১৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



খেই হারিয়ে ফেলা অজিদের চ্যালেঞ্জিং স্কোর

ছবি : এএফপি

সেমির লড়াইয়ের জন্য আজকের ম্যাচটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু এমন ম্যাচে ইংলিশদের বিপক্ষে দুর্দান্ত শুরুর পরও তা ধরে রাখতে পারেনি অস্ট্রেলিয়া। অ্যারন ফিঞ্চের দুর্দান্ত সেঞ্চুরি আর ডেভিড ওয়ার্নারের হাফ সেঞ্চুরির পরও তারা ইনিংসের শেষদিকে খেই হারিয়ে ফেলে। যে কারণে একসময় বড় স্কোরের স্বপ্ন দেখিয়েও তিনশ পার করতে পারেনি বর্তমান বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ৫০ ওভারে তাদের সংগ্রহ দাঁড়িয়েছে ৭ উইকেটে ২৮৫ রান। এই রান দিয়ে ইংল্যান্ডকে আটকানো কঠিন হলেও অসম্ভব নয়।

ক্রিকেটের মক্কায় টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে অস্ট্রেলিয়াকে দুর্দান্ত শুরু এনে দেন দুই ওপেনার অ্যারন ফিঞ্চ আর ডেভিড ওয়ার্নার। ৬১ বলে ৯ বাউন্ডারিতে হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন অজি দলপতি অ্যারন ফিঞ্চ। তার চেয়ে আরেকটু বেশি স্ট্রাইক রেটে ৫২ বলে হাফ সেঞ্চুরি পূরণ করেন চলতি বিশ্বকাপে ফর্মের তুঙ্গে থাকা ডেভিড ওয়ার্নার। শেষ পর্যন্ত ওয়র্নারকে (৫৩) জো রুটের তালুবন্দি করে ১২৩ রানের উদ্বোধনী জুটি ভাঙেন মঈন আলী। তিনে নামা উসমান খাজা আজ ইনিংস লম্বা করতে পারেননি। বেন স্টোকসের বলে বোল্ড হয়েছেন ২৩ রানে।

১১৫ বলে ১১ চার ২ ছক্কায় ক্যারিয়ারের ১৫তম সেঞ্চুরি তুলে নেন ফিঞ্চ। তবে পরের বলেই তাকে প্যাভিলিয়নে ফেরত পাঠান জোফরা আর্চার। উইকেটে এসেই ১ ছক্কা ১ চারে ঝড়ের ইঙ্গিত দেওয়া বিপজ্জনক ম্যাক্সওয়েলকে (১২) থামান মার্ক উড। এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে ইংলিশরা। স্টিভেন স্মিথ রসঙ্গে ভুল বোঝাবুঝিতে রান-আউট হয়ে যান মার্কাস স্টয়নিস (৮)। স্টিভেন স্মিথও ৩৮ রান করে ফিরেছেন ক্রিস ওকসের বলে আর্চারের তালুবন্দি হয়ে। প্যাট কামিন্সকে (১) দ্বিতীয় শিকারে পরিণত করেন ওকস। শেষে অ্যলেক্স কোরির ২৭ বলে ৩৮* রানের ক্যামিওতে ৫০ ওভারে ৭ উইকেটে ২৮৫ রান তোলে অস্ট্রেলিয়া।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা