kalerkantho

বুধবার । ১৭ জুলাই ২০১৯। ২ শ্রাবণ ১৪২৬। ১৩ জিলকদ ১৪৪০

আউট হওয়ার আগে আবারও শীর্ষে উঠলেন সাকিব

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৪ জুন, ২০১৯ ১৭:৫৬ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



আউট হওয়ার আগে আবারও শীর্ষে উঠলেন সাকিব

তামিম ইকবালের বিদায়ের পর মুশফিকের সঙ্গে দারুণ জুটি জমে গিয়েছিল সাকিবের। এরপর চলতি বিশ্বকাপে নিজের তৃতীয় হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন সাকিব। ৬৬ বলে হাফ সেঞ্চুরি করার পর ৪ বাউন্ডারিতে ৫১ রানেই মুজিব উর রহমানের দ্বিতীয় শিকার হন বিশ্বসেরা অল-রাউন্ডার। ভাঙে ৬১ রানের তৃতীয় উইকেট জুটি। মুশফিকের সঙ্গী হন সৌম্য সরকার। তবে ইতিমধ্যেই সাকিব আবারও সর্বোচ্চ রান সংগ্রহক হয়ে গেছেন।ওয়ার্নারকে পেছনে ফেলে তার সংগ্রহ ৪৭৪ রান। ৩১ ওভারে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৩ উইকেটে ১৪৮ রান। 

সাউদাম্পটনের রোজ বোলে বৃষ্টি বিঘ্নিত টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামে বাংলাদেশ। বিশ্বকাপে প্রথমবারের মতো ওপেনিং করতে নামলেন লিটন দাস। এতদিন প্রথম বলটি সবসময় তামিম খেলতেন; আজ খেললেন লিটন। কিন্তু তাকে ঘিরেই শুরু হলো বিতর্ক। মুজিব-উর-রহমানের বলে শর্ট কাভার থেকে ক্যাচ নেন হাশমতউল্লাহ শহিদি। ফিল্ড আম্পায়ার নিশ্চিত ছিলেন না আউট নিয়ে। তাই ডাকা হয় তৃতীয় আম্পায়ার। টিভি রিপ্লেতে দেখা যায়, বলটি শহিদির হাত ছুয়ে মাটি স্পর্শ করেছে। শেষ পর্যন্ত 'বেনিফিট অব ডাউট' আইন না মেনেই লিটনকে (১৬) আউট দেন টিভি আম্পায়ার আলিম দার।

লিটন দাসের বিতর্কিত আউটের পর জুটি বেঁধে পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার মিশনে ছিলেন তামিম ইকবাল এবং বিশ্বসেরা অল-রাউন্ডার সাকিব আল হাসান। দুইজনের জুটিতে এসে গিয়েছিল ৫৯ রান। তখনই ছন্দপতন। মোহাম্মদ নবির বলে বোল্ড হয়ে যান ৫৩ বলে ৩৬ রান করা তামিম ইকবাল। রশিদের বলে সাকিবের বিপক্ষেও এলবিডাব্লিউয়ের আবেদনে সাড়া দিয়েছিলেন আম্পায়ার। তবে রিভিউ নিয়ে সেই সিদ্ধান্ত বাতিল করতে বাধ্য করে বাংলাদেশ।

আজকের ম্যাচে চোট কাটিয়ে টাইগার একাদশে ফিরেছেন পেস বোলিং অল-রাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন ও অফ স্পিনিং অল-রাউন্ডার মোসাদ্দেক হোসেন। পিঠের সমস্যার জন্য সাইফ ও কাঁধের চোটের জন্য অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে খেলেননি মোসাদ্দেক। তাদের জায়গায় সেই ম্যাচে খেলা পেসার রুবেল হোসেন ও সাব্বির রহমান বাদ পড়েছেন। আফগান একাদশেও এসেছে পরিবর্তন। ফিরেছেন পেসার দৌলত জাদরান। আর প্রথমবারের মতো সুযোগ পেয়েছেন সামিউল্লাহ শিনওয়ারি।

বাংলাদেশ একাদশ: তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, লিটন দাস, মাহমুদউল্লাহ, মোসাদ্দেক হোসেন, মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন, মেহেদী হাসান মিরাজ, মাশরাফি বিন মুর্তজা, মুস্তাফিজুর রহমান।

আফগানিস্তান একাদশ: গুলবাদিন নাইব, সামিউল্লাহ শিনওয়ারি, রহমত শাহ, হাশমতউল্লাহ শাহিদি, আসগর আফগান, নাজিবউল্লাহ জাদরান, মোহাম্মদ নবি, রশিদ খান, ইকরাম আলি খিল, দৌলত জাদরান, মুজিব উর রহমান।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা