kalerkantho

শনিবার । ২০ জুলাই ২০১৯। ৫ শ্রাবণ ১৪২৬। ১৬ জিলকদ ১৪৪০

উইলিয়ামসনের প্রশংসায় পঞ্চমুখ সবাই

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ জুন, ২০১৯ ১৮:২৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



উইলিয়ামসনের প্রশংসায় পঞ্চমুখ সবাই

ছবি : এএফপি

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে উত্তেজনাকর ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের ৪ উইকেটের জয়ের মূল নায়ক ছিলেন অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। এবারের বিশ্বকাপে এ পর্যন্ত অনুষ্ঠিত ম্যাচগুলোর মধ্যে কিছুটা লো স্কোরিং হলেও শেষ ওভার পর্যন্ত যাওয়া এই ম্যাচটি ছিল নাটকীয়তায় ভরা। কিন্তু তিন বল হাতে রেখে নিউজিল্যান্ডকে ৪ উইকেটের জয় উপহার দিতে উইলিয়ামসনের ১০৬ রানের ইনিংসটি স্মরণীয় হয়ে থাকবে।

এই জয়ে নিউজিল্যান্ড পাঁচ ম্যাচে ৯ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে উঠে এসেছে। অন্যদিকে সেমিফাইনালের স্বপ্ন অনেকটাই ফিকে হয়ে গেছে সমসংখ্যক ম্যাচে তিন পয়েন্ট সংগ্রহ করা প্রোটিয়াদের। ইংল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক ও ওপেনিং ব্যাটসম্যান মাইকেল ভন টুইটারে লিখেছেন, 'উইলিয়ামসনের আজকের ইনিংসটি ছিল বিশেষ কিছু। দুর্দান্ত চাপের মধ্যেও তিনি বিচলিত হননি, কি অসাধারন একজন খেলোয়াড়, কি অসাধারণ একটি সেঞ্চুরি।'

ইংল্যান্ডের আরেক সাবেক অধিনায়ক মাইকেল আথারটন টুইটারে নিউজিল্যান্ড অধিনায়ককে গতকালের ম্যাচের 'রত্ন' হিসেবে উল্লেখ করেছেন। সাবেক ফাস্ট বোলার ও ক্রিকেট সাংবাদিক মাইক সেলভে বলেছেন, ‘বিশ্বের কোন ব্যাটনম্যানই কেন উইলিয়ামসনের মত এতটা ঠান্ডা মাথায় খেলার যোগ্যতা রাখেনা।'

৩৩ ওভারে নিউজিল্যান্ডের স্কোর যখন ৫ উইকেটে ১৩৭ তখনই ২৮ বছর বয়সী উইলিয়ামনসন ষষ্ঠ উইকেটে কলিন ডি গ্র্যান্ডহোমকে (৬০) নিয়ে ম্যাচজয়ী ৯১ রানের পার্টনারশীপ গড়ে তুলেন। আন্দিল ফেলুকুয়াওর নবম ও ইনিংসের শেষ ওভারের দ্বিতীয় বলে উইলিয়ামসন ওভার বাউন্ডারি হাকিয়ে ক্যারিয়ারের ১২তম ওয়ানডে সেঞ্চুরি পূরণ করেছেন। পরের বলেই বাউন্ডারি মেরে দলের জয় নিশ্চিত করেছেন।

ভারতের সাবেক ব্যাটনম্যান ও আইপিএল’এ সাইরাইজার্স হায়দ্রাবাদে উইলিয়ামসনের মেন্টর ভিভিএস লক্ষ্মণ সামাজিক যোগযোগ মাধ্যমে বলেছেন, 'কেন উইলিয়ামসনের কাছ থেকে কি অসাধারন একটি ইনিংস এসেছে। ঠান্ডা মাথায় ব্যাটিং করে সে দলের জয় নিশ্চিত করেছে।'

উইলিয়ামসন নিজে অবশ্য এই জয়ে গ্র্যান্ডহোমের অবদানের প্রশংসা করে বলেছেন, 'কলিনের সাথে পার্টনারশিপটাই জয়ের ভিত গড়ে দিয়েছে। সে আজ অসাধারণ ব্যাটিং করেছে।'

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা