kalerkantho

শুক্রবার । ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৮ রবিউস সানি ১৪৪১     

নিউজিল্যান্ডের জয়, সেমির আশা অনিশ্চিত দ. আফ্রিকার

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ জুন, ২০১৯ ০১:১৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নিউজিল্যান্ডের জয়, সেমির আশা অনিশ্চিত দ. আফ্রিকার

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ৪ উইকেটের পরাজয়ে এবারের বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে খেলা অনিশ্চিত হয়ে গেল দক্ষিণ আফ্রিকার। 

নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচ থেকেই পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষস্থানটা দখলে নিয়ে রেখেছিল নিউজিল্যান্ড। কিন্তু মাঝে এক ম্যাচ বৃষ্টিতে ভেসে যাওয়ায় হাতছাড়া হয়ে যায় তাদের এক নম্বর স্থানটি। তা নিয়ে নেয় ইংল্যান্ড। তবে শীর্ষস্থান ফিরে পেতে খুব একটা সময় নিল না কিউইরা।

বুধবার ইংল্যান্ডের বার্মিংহামের এজবাস্টনে অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনের ব্যাটে চড়ে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ৫ উইকেটের জয় পেয়েছে তারা। বৃষ্টির কারণে ৪৯ ওভারে নেমে আসা ম্যাচে প্রোটিয়াদের করা ২৪১ রানের সংগ্রহ টপকে যেতে কঠিন পরীক্ষাই দিতে হয়েছে নিউজিল্যান্ডকে।

টার্গেট তাড়া করতে নেমে নির্ধারিত ওভারের ৩ বল হাতে রেখে জয় নিশ্চিত করে নিউজিল্যান্ড। দলের জয়ে অনবদ্য ব্যাটিং করে সেঞ্চুরি করেন অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। তার দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়েই জয়ের বন্দরে নোঙর ফেলতে সক্ষম হয় নিউজিল্যান্ড। দলের জয়ে ১৩৮ বলে ৯টি চার ও এক ছক্কায় অপরাজিত ১০৬ রান করেন উইলিয়ামসন।

এর আগে ইংল্যান্ডের বার্মিংহামে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামার আগে বৃষ্টির বাগড়ায় পড়ে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা। বৃষ্টি ভেজা ম্যাচে ব্যাটিংয়ে নেমে দলীয় ৯ রানে ট্রেন্ট বোল্টের বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন কুইন্টন ডি কক।

এরপর দ্বিতীয় উইকেটে অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিসের সঙ্গে ৫০ রানের জুটি গড়েন আমলা। ৩৫ বলে ২৩ রান করে লুকি ফার্গুনসনের বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিস।

ব্যাটসম্যানদের মধ্যে দায়িত্বশীল ব্যাটিং করে যান আমলা। তবে ফিফটির পর নিজের ইনিংসটা লম্বা করতে পারেননি। মিসেল স্ট্যান্টনারের বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন আমলা। তার আগে ৮৩ বলে চারটি চারের সাহায্যে ৫৫ রান করেন তিনি। এই রান করার পথে ওয়ানডে ক্রিকেটে দ্বিতীয় দ্রুততম (১৭৬ ম্যাচ) ৮ হাজার রান সংগ্রহ করেন আমলা। দক্ষিণ আফ্রিকান চতুর্থ ব্যাটসম্যান হিসেবে ৮ হাজার রানের মাইলফলক স্পর্শ করেন তিনি।

আমলার বিদায়ের পর দ্রুত আউট হন অ্যাডাম মার্কওরাম। তিনি ৫৫ বলে ৩৮ রান করে ফেরেন। তবে রিশি ভ্যান দার ডুসেনের অপরাজিত ৬৪ বলে তিনটি ছক্কা ও দুটি চারে গড়া ৬৭ রানের ইনিংসে ভর করে ২৪১ রান তুলতে সক্ষম হয় দক্ষিণ আফ্রিকা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা