kalerkantho

সোমবার । ২২ জুলাই ২০১৯। ৭ শ্রাবণ ১৪২৬। ১৮ জিলকদ ১৪৪০

একই ভুলের পুনরাবৃত্তি ঘটাতে চান না তামিম

তানভীর আহমেদ প্রান্ত   

১৬ জুন, ২০১৯ ১৪:৫৪ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



একই ভুলের পুনরাবৃত্তি ঘটাতে চান না তামিম

বাংলাদেশ ব্যাটিংয়ের সবচেয়ে বড় স্তম্ভ তামিম ইকবাল। তার ব্যাট হাসলে হাসে গোটা দল। তবে বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত হাসেনি তামিমের ব্যাট। তিন ম্যাচেই সেট হয়ে উইকেট দিয়ে এসেছেন তিনি। তবে পরের ম্যাচগুলোতে এমন ভুল না করার ব্যাপারে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ খান সাহেব। উইকেটে থিতু হতে পারলে এবার বড় ইনিংস খেলার লক্ষ্য তাঁর।

নিঃসন্দেহে বাংলাদেশ ক্রিকেটের সেরা ব্যাটসম্যান তামিম। তিন ফরম্যাটে তার রেকর্ডও তার পক্ষেই কথা বলবে। কিন্তু চতুর্থ বিশ্বকাপ খেলতে আসা তামিমের বিশ্বকাপ রেকর্ড বড্ড মলিন। বিশ্বকাপ অভিষেক ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে সেই সাড়া জাগানো ইনিংস ছাড়া বলার মত পারফরম্যান্স হাতে গোনা যাবে না তার। কিন্তু দেশ সেরা ব্যাটসম্যান থেকে আরো ভালো কিছুর আশা অবশ্যই করে গোটা দল। তামিম নিজেও জানেন তা। গত বিশ্বকাপ দুঃস্বপ্নের মত কেটেছিল। তারপর থেকে গত চার বছর ধরে আছেন দারুন ফর্মে। সেই ফর্মটা এবার বিশ্বকাপে দেখা যাচ্ছে না। প্রথম তিন ম্যাচেই সেট হয়ে উইকেট দিয়ে এসেছেন প্রতিপক্ষকে। 
ইনিংসের শুরুতে বল নষ্ট করছেন বলেও অভিযোগ উঠছে তার বিরুদ্ধে। তবে তামিম জানেন এখান থেকে মুক্তির পথ। তামিম নিজেই নিজের বড় সমালোচক। নিজের খেলায় হতাশ তিনি নিজেই। প্রতিজ্ঞা করেছেন পরের ম্যাচগুলোয় শুরুটা পেয়ে গেলে আর উইকেট বিলিয়ে আসবেন না। 

পরিসংখ্যান বলছে, এবারের বিশ্বকাপের তিন ম্যাচেই তামিম শুরুতে উইকেটে থিতু হতে চেষ্টা করে সফল হয়েও পরে উইকেট দিয়ে এসেছেন প্রতিপক্ষকে। দক্ষিণ আফ্রিকার সঙ্গে ২৯ বলে ১৬, নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে ৩৮ বলে ২৪ আর ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ২৯ বলে ১৯। শুরুতে খুব একটা নড়বড়েও লাগেনি তাকে। স্বাচ্ছন্দেই খেলেছিলেন। কিন্তু হঠাতই মনঃসংযোগের হাল্কা বিঘ্নতেই ঘটেছে বিপত্তি। এভাবে সেট হয়ে বড় ইনিংস খেলতে না পারার আক্ষেপে পুড়ছেন তামিম নিজেও। গতকাল শনিবার সংবাদ সম্মেলনে তামিম জানান, "আপনারা যারা আমার খেলা সম্পর্কে জানেন, তারা জানেন আমি হয় শুরুতেই আউট হয়ে যাই আর নাহলে বড় ইনিংস খেলি। এবার তিন ম্যাচেই শুরুটা ভালো করেও আউট হয়ে গেছি, এটা অবশ্যই হতাশার। শুরুর চ্যালেঞ্জটা কাটিয়ে উঠে এভাবে উইকেট দেওয়াটা মোটেই ঠিক হয়নি। আমার নিজেরই ভুল ছিল। এটাই আমাকে হতাশ করছে বেশি।" 

তামিম অবশ্য শিক্ষা নিয়েছেন তার ভুল থেকে। জানালেন পরের ম্যাচগুলোতে শুরুর চ্যালেঞ্জ কাটিয়ে উঠলে আর আগের ভুল করবেন না। বলেন, "উইন্ডিজের ম্যাচে যদি শুরুর ধাক্কা সামলে নিতে পারি, তাহলে ইনশাআল্লাহ আর উইকেট বিলিয়ে দিয়ে আসব না। চেষ্টা থাকবে লম্বা ইনিংস খেলার। আর প্রতিপক্ষের বোলিং যেমনই হোক, আমি আমার সেরাটা খেলতে পারলেই হবে।" 

তামিম তার ভুল কাটিয়ে উঠবেন। এটা আশা সকল ক্রিকেট সমর্থকের। তার থেকে একটা লম্বা ইনিংস যে দলেরও ভীষণ দরকার।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা